Amar Praner Bangladesh

জামালপুরে গ্রাম্য শালীস বৈঠকে মাতব্বরকে পিটিয়ে হত্যা আটক-২

তৌকির আহাম্মেদ হাসু, সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি ঃ জামালপুরে গ্রাম্য শালিস বৈঠকে এক মাতব্বরকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি জামালপুর সদর উপজেলার দিগপাইত ইউনিয়নের পূর্বপাড় দিঘুলী গ্রামে গতকাল সোমবার সকাল দশটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।এ ঘটনায় পূর্ব পাড়া দিঘুলী গ্রামের কাজেম উদ্দিন (৫৫) ও তাঁর ছেলে জয়নাল আবেদীন (৩৫) নামে দুজনকে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে আটক করেছে পুলিশ।
পুলিশ ও স্থানীয় এবং নিহতের পারিবারীক সূত্র জানা গেছে ,জামালপুর সদর উপজেলার দিগপাইত ইউনিয়নের পূর্বপাড় দিঘুলী গ্রামের কাজেম উদ্দিন ও মফিজ উদ্দিনের দীর্ঘ দিন ধরে বাড়ীর রাস্তা নির্মান নিয়ে বিরোধ চলছিল।এ বিরোধ সমঝোতার লক্ষে কাজেম উদ্দিনের বাড়িতে গতকাল সোমবার সকাল দশটার দিকে গ্রাম্য শালিস বৈঠক বসে। ওই শালিস বৈঠকে উভয় পক্ষের মধ্যে দরবারের সিদ্ধান্ত বনিবনা মেনে নেয়াকে কেন্দ্র করে দু পক্ষের হাতা-হাতির এক পর্যায়ে মারপিট শুরু হয়। ওই মারপিটে কাজেম উদ্দিনের লোকজন গ্রাম্য শালিসে আসা মাতব্বর বাবর আলী’র মাথায় কাঁঠের লাঠি দিয়ে আঘাত করলে গুরুতর আহত হন।পরে শালীসে আসা লোকজন মাতব্বরকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথিমধ্যে তাঁর মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।
নিহত মাতাব্র জামালপুর সদর উপজেলার দিগপাইত ইউনিয়নের পূর্বপাড় দিঘুলী গ্রামের আজাফর আলীর ছেলে বাবর আলী (৩৮) বলে জানা গেছে। তিনি দিগপাইত ইউনিয়ন ৭ নং ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন।
জামালপুর সদর উপজেলার নারায়নপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক (এসআই) জয়নাল আবেদীন বলেন,‘বাড়ির রাস্তা তৌরী নিয়ে গ্রাম্য শালিসে এক পক্ষের মারপিটে মাতাব্বরের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হচ্ছে। নিহতের স্ত্রী ছামেনা বেগম বাদী হয়ে জামালপুর সদর থানায় হত্যা মামলার করার প্রস্তুতি চলছে।’