Amar Praner Bangladesh

জামিল হাসান দূর্জয়ের একটাই কথা প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

 

মাহবুব আলম :

 

গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন নিয়ে মরহুম রহমত আলীর সন্তান ও গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জামিল হাসান দূর্জয় বলেন, বহুল প্রতিক্ষীত গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন হয়ে গেল ১৯মে বৃহস্পতিবার। আপনারা জানেন সেই সম্মেলনে আমি গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিলাম।

কিন্তু সম্মেলনের মধ্য দিয়ে যে নেতৃত্ব এসেছে তা নিয়ে আপনাদের হতাশার কথা ,ব্যথিত হবার কথা মোবাইল ফোনে, ফেইসবুকে, বিভিন্ন মাধ্যমে ব্যক্ত করেছেন। আপনাদের এসকল অভিব্যক্তির উত্তরে সবাইকে একটা কথাই বলতে চাই জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। এর বাহিরে আমার আর বলার কিছু নাই। আমাদের মাঝে নেতৃত্বের প্রতিযোগীতা থাকলেও আমি গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক’কে অভিনন্দন জানাই।

প্রিয় সহযোদ্ধাগন হাজার হাজার নেতাকর্মী যারা আমাকে সাথে নিয়ে সম্মেলনস্থলে গিয়েছিলেন তাদের উদ্দেশ্যে আমি কিছু কথা বলতে চাই। আমার মরহুম পিতা বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অ্যাড. মোঃ রহমত আলীর বর্নাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের কথা আপনারা জানেন। আমি তাঁরই সন্তান। আমার রক্তে আওয়ামী লীগ প্রবাহমান। আমি আপনাদের ভালোবাসার কাছে ঋণী। এই ঋণ শোধ করার ব্যর্থ চেষ্টা আমি করতে যাব না।

গতবার আমি গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিলাম, পরবর্তিতে মহান জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলাম, এবং এবারও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিলাম, সফল হতে পারিনি । তবে আমার প্রতি আপনাদের ভালোবাসার কোন কমতি ছিল না। এই ভালোবাসাই আমাকে বার বার এগিয়ে যাবার শক্তি যুগিয়েছে। আপনাদের জ্ঞাতার্থে জানিয়ে রাখি যদিও আপনারা সবই জানেন আমার সুদীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে অনেককেই আমি আমার জায়গা থেকে রাজনৈতিক ভাবে প্রতিষ্ঠিত করার শতভাগ চেষ্টা করেছি এবং আমি বিশ্বাস করি গাজীপুর-৩ আসনের এই কর্মীগুলোই জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার জন্য ঢাল হয়ে দাঁড়াবে।

এসবের মধ্য দিয়েই আমি কিছু বিশ্বস্ত কর্মী পেয়েছি যাদের সাথে সুদীর্ঘ একটা পথ আমি পারি দিতে পারব। এই বিশ্বস্ত কর্মীগুলোর সাথে আমার একটা আত্মার সম্পর্ক তৈরী হয়েছে। রাজনীতিতে সব সময় ক্ষমতায় থাকবেন এই প্রত্যাশা কখনোই করা উচিৎ নয়। উজান-ভাটি থাকবে যা আমাদেরকে আরো শক্তিশালী হতে সহযোগীতা করবে। আপনাদের এই ভালোবাসা আমার প্রতি অব্যাহত থাকবে এই প্রত্যাশাই করছি৷

আবারো স্মরণ করিয়ে দেই আমি আলহাজ্ব অ্যাড.রহমত আলী সাহেবের সন্তান আলহাজ্ব অ্যাড. জামিল হাসান দূর্জয়, হেরে গিয়ে থেমে যাবার লোক নই। আজ না হয় হল না, কালও যদি না হয়,আমি থেমে যাবার লোক নই। আমার এই পথে যে সেসকল নেতাকর্মীরা পাশে থাকবে আমি তাদেরকে নিয়েই এই পথটা পাড়ি দিতে চাই। জয় বাংলা বলেই এগিয়ে যেতে চাই।

পরিশেষে গাজীপুর জেলার পাঁচ’টি উপজেলার এবং গাজীপুর মহানগরের প্রতিটি থানা এবং ওয়ার্ডে আমার বাবার রেখে যাওয়া হাজারো নেতাকর্মীদের আমার প্রতি তাদের ভালোবাসার যে বহিঃপ্রকাশ গতকাল দেখেছি আমি তাদেরকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। এমন বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করেন অ্যাডভোকেট জামিল হাসান দুর্জয়।