Amar Praner Bangladesh

ঝালকাঠিতে নবম শ্রেনীর মেধাবী ছাত্রীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার

এস এম রাজ্জাক পিন্টু :

কিছুদিন আগে যে মেয়েটি পাঠদানের উদ্যেশ্যে ঝালকাঠি সরকারী হরচন্দ্র বালিকা বিদ্যালয়ে যাইত সে আজ মৃত. সে আর কোন দিন বলবে না বাবা টাকা দেও, বাবা আমি ঐ জিনিষটা খাব এ কথা বলবে না আর কোন দিন এমনটাই জানালেন মেয়ে হারা পিতা ঝালকাঠি সদর উপজেলার বাসন্ডা’র কুরিহারী গ্রামের ব্যবসায়ী দুলাল বেপারী। তার মেয়ে বৈশাখী বেপারী সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে তার বাবার কাছ থেকে সর্বমেষ বিদায় নিয়ে নিজ বসত ঘরে চলে যায়, তখন তার মা ও ভাই প্রতিবন্ধী ব্যাংকে ভাতা আনতে শহরে যায়। পিতা দুলাল বেপারী নিজে দুপুরে বাড়ীতে গেলে দেখে ঘরের ভিতর থেকে দরজা দেওয়া তখন অনেক ডাকাডাকি করে ভিতর থেকে সাড়া না পেয়ে তার ভাইপোকে ডেকে দরজা ভাঙ্গে এবং ভিতরে বৈশাখীর ঝুরন্ত লাশ উদ্ধার করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করেন। দুলাল বেপারী বাদী হয়ে অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে পুলিশ উক্ত এলাকা থেকে নাইম নামক এক যুবককে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পরে ছেড়ে দেয়। নাইম সম্পর্কে হতভাগ্য পিতা দুলাল জানান, তার মেয়ে বৈশাখীকে রাস্তা-ঘাটে উত্ত্যক্ত করত বখাটে নাইম এ নিয়ে এলাকায় সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হলেও বখাটে নাইমকে কেউ রুখতে পারেনি। নাইম কৃষ্ণকাঠি এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে।