Amar Praner Bangladesh

টঙ্গীতে বিপুল পরিমাণের চোরাই মোবাইল ও চোরচক্রের ৯ সদস্য গ্রেফতার

 

 

মোঃ রাজন ইসলাম রাজুঃ

 

গাজীপুরের টঙ্গী বউ বাজার ও আরিচপুর এলাকা থেকে মোবাইল চোর চক্রের ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে জিএমপির টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ।

অভিযানে বিপুল পরিমাণ চোরাই মোবাইল, সিম কার্ড ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়৷

রোববার দুপুরে গাজীপুর মেট্রোপলিটন অপরাধ (দক্ষিণ) বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. মাহবুব-উজ-জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গ্রেফতাররা হলেন- মো. ওয়াসিম (৩৬), মো. বিপ্লব (২৭), মো. রফিকুল ইসলাম (৫০), মো. মিজানুর রহমান (২৯), মো. সাদিকুল ইসলাম (৩৫), মো. শাহবুদ্দিন (২৮), মো. নাঈমুল হক(২০), মো. হাবিব (২০) ও মো. কামরুল হাসান(৪২)৷

উপ-পুলিশ কমিশনার মো. মাহবুব-উজ-জামান বলেন, পুলিশ গোয়েন্দা সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, মোবাইল চোর সিন্ডিকেট চক্র গাজীপুর ও টঙ্গীর বউ বাজার সহ বিভিন্ন এলাকায় দীর্ঘদিন ধরেই অবৈধ মোবাইল কেনা-বেচার বানিজ্য নিয়ে তৎপর।

তারা এসব মোবাইল ফোন বিভিন্ন মার্কেটের সামনে ভাসমান দোকানে গোপনে বিক্রি করে আসছে। এছাড়াও বিভিন্ন স্থান থেকে চুরি এবং ছিনতাইকৃত মোবাইল ফোনের ছিনতাইকারী চক্র সুকৌশলে নানা সিন্ডিকেট হোতার সঙ্গে যোগসাজশে এসব চোরাই মুঠোফোন কেনা-বেচায় জড়িত রয়েছে।

উপ-পুলিশ কমিশনার আরো বলেন, এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার সকাল থেকে অভিযান পরিচালনা করে মোবাইল চোরচক্রের ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। অভিযানে গ্রেফতার আসামিদের কাছ থেকে টাচ মোবাইল ১৪৩টি, বাটন মোবাইল ১১৭টি, ট্যাব ৬টি, একাধিক সিমকার্ড এবং নগদ ৩২ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

উপ-পুলিশ কমিশনার বলেন, গ্রেফতার আসামিদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা মূলত ছিনতাই/চোরাইকৃত মোবাইল ফোন অল্প দামে কিনে সুযোগ বুঝে বেশি দামে বিক্রি করে। আসামীরা প্রত্যেকেই মুঠোফোন ছিনতাই/চোর চক্রের সদস্য এবং চোরাই ও ছিনতাইকৃত মোবাইল ক্রয়-বিক্রয়ের সঙ্গে জড়িত। ছিনতাইকারীদের প্রধান টার্গেট থাকে পথচারীদের মোবাইল। এসব মোবাইল স্বল্পদামে চোরাই মোবাইল কারবারিদের কাছে বিক্রি করে আসছে। এছাড়াও এসব মোবাইল স্বল্প আয়ের গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করে থাকে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।