Amar Praner Bangladesh

টঙ্গী পশ্চিম থানা কর্তৃক অপহরণের ০৬ ঘন্টার মধ্যে শিশু উদ্ধার ও ২ আসামী গ্রেফতার

 

 

মোঃ সাহাজুদ্দিন সরকার :

 

গত ০১/০৩/২০২২ ইং তারিখ দুপুর ১১.৩০ ঘটিকার সময় মােঃ নুর ইসলাম (৩৮), পিতা-মােঃ ফনির উদ্দিন,মাতা-সূর্যবানু, স্থায়ী গ্রাম-বড়হাট, পােঃ নাটেরহাট, থানা-বীরগঞ্জ, জেলা-দিনাজপুর, বর্তমানে গ্রাম-সাতাইশ চৌরাস্তা,বাছির উদ্দিন সরকারের বাড়ির ভাড়াটিয়া, পােঃ সাতাইশ, থানা-টঙ্গী পশ্চিম, গাজীপুর মহানগর, গাজীপুর (পেশায়গার্মেন্টস এর লােডার) এর নাবালক ছেলে মােঃ সােহান (০৬) বাসার সামনে খেলাধুলা করছিল। তখন সােহানের মা নাসিমা আক্তার বাসায় রান্না ঘরে রান্না করিতেছিল।

সুযােগ বুঝে পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী সকলের অজান্তে দুপুর অনুমান ১২.০০ ঘটিকার দিকে আসামী ১। মােঃ সােহেল (২০), পিতা-ইয়াজউদ্দিন & রিয়াজ উদ্দিন, মাতা-সরুফা বেগম, স্থায়ী গ্রাম-বালিয়াচন্ডী পাইকুড়াবাজারের উত্তর দিকে, ওয়ার্ড নং-০৫, থানা-ঝিনাইগাতি, জেলা-শেরপুর,বর্তমানে গ্রাম-সাতাইশ চৌরাস্তা, বাছির উদ্দিন সরকারের বাড়ির ভাড়াটিয়া, পােঃ সাতাইশ, থানা-টঙ্গী পশ্চিম,গাজীপুর মহানগর, গাজীপুর, ২। মােঃ ফারুক (২৭), পিতা-মােঃ আক্কাস মিয়া, মাতা-মােসাঃ রওশান আরা, স্থায়ীগ্রাম-দিলুরা, থানা-কলমাকান্দা, জেলা-নেত্রকোনা, বর্তমানে গ্রাম-ভাদাম, ইয়াসিন মােল্লার বাড়ির ভাড়াটিয়া, থানা-টঙ্গীপশ্চিম, গাজীপুর মহানগর, গাজীপুরদ্বয় শিশু সােহানকে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়।

আসামী সােহেলের মােবাইল নাম্বার হইতে একইদিনে দুপুর অনুমান ১২.৩০ ঘটিকার সময় আসামী ফারুক ভিকটিমের বাবার প্রতিবেশি মোক্তার হােসেনের মােবাইলে ফোন করে মুক্তিপন হিসেবে ১ লক্ষ টাকা দাবি করে। যদি টাকা না পায় তাহলে আসামীরা ভিকটিমকে প্রানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। ভিকটিমের বাবার প্রতিবেশি মােক্তার তাৎক্ষণিক ভিকটিমের
বাবা নুর ইসলামকে অপহরনের বিষয়টি অবহিত করলে এই ঘটনায় অপহৃতের বাবা দ্রুত টঙ্গী পশ্চিম থানাকে জানায়।টঙ্গী পশ্চিম থানা বিষয়টি অবহিত হয়ে পুলিশ কমিশনার, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ, গাজীপুর মহােদয়সহ
উপ-পুলিশ কমিশনার অপরাধ (দক্ষিণ) বিভাগের সার্বিক দিক নির্দেশনায় টঙ্গী পশ্চিম থানার একটি চৌকস টিম অপহৃত শিশুকে উদ্ধার এবং অপহৃতদের গ্রেফতারে কাজ শুরু করে।

ভিকটিমের বাবার জবাবন্দি পর্যালােচনা এবং তথ্য প্রযুক্তি বিশ্লেষন করে অপহৃত শিশু মােঃ সােহানকে টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন ভারাল বালুর মাঠ থেকে গত০২/০৩/২০২২খ্রিঃ তারিখ সন্ধ্যা ০৬.০০ ঘটিকায় সময় উদ্ধার করা হয় এবং আসামীদের মােবাইল নাম্বার ট্র্যাক করে সােহেল (২০) কে ডিএমপি তেজগাঁও থানাধীন ফার্মগেইট এলাকা থেকে এবং আসামী সােহেলের তথ্য অনুযায়ী তার সহযােগী আসামী ফারুক (২৭) কে টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন ভাদাম এলাকা হইতে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদে আসামীদ্বয় পূর্বপরিকল্পিতভাবে ভিকটিম শিশু সােহান (০৬ কে অপহরণ করে বলে পুলিশের নিকট স্বীকার করে।

গ্রেফতারদ্বয় আসামী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এবং জানায় মুক্তিপনের আশায় অপহৃত শিশু সােহানকে ঘুরতে নিয়ে গিয়ে ঘুড়ি কিনে দেয়ার কথা বলে অটোরিক্সায় তুলে অপহরণ করে এবং নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে সােহানের বাবার নিকট মােক্তারের মােবাইলে কলের মাধ্যমে ১ লক্ষ টাকা দাবি করে। ধৃত আসামীদের বিরুদ্ধে টঙ্গী পশ্চিম থানার মামলা রুজু করা হইয়াছে।