Amar Praner Bangladesh

থানায় মানুষ বিচার পায় না, পুলিশও হত্যাকাণ্ডে জড়িয়েছে : জি এম কাদের

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

 

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির প্রসঙ্গ উল্লেখ করে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলছেন, আমরা যখন ক্ষমতায় ছিলাম, তখন কোন হত্যাকাণ্ড ছিল না। আমাদের সরকারের পুরো সময় মারা গেছে ৭/৮ জন, এখন দৈনিক মারা যায় ২০/২১ জন। থানায় গেলে মানুষ বিচার পায় না, পুলিশও হত্যার সঙ্গে জড়িয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) বিকেলে পটুয়াখালী জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জি এম কাদের বলেন, ‘মানুষ জীবনবাজি রেখে স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছেন, আমরা এবার স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছি, কিন্তু আজ পর্যন্ত মানুষ স্বাধীনতার সুফল পায়নি।’

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘বর্তমানে বাংলাদেশে তিনটি রাজনৈতিক দল আছে, তিনটির মধ্যে জাতীয় পার্টি ছাড়া আর দুটি দলের আদর্শগত অমিল থাকলেও চরিত্রগত তারা এক। ক্ষমতায় যেই থাকুক, লুটপাট সবাই করে। শুধু জাতীয় পার্টি এর ব্যতিক্রম।’

তিনি বলেন, ‘আমরা পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, জাতীয় পার্টি এখন আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বন্ধু বা শত্রু কোনোটাই হতে চায় না, আমরা জনগণের বন্ধু হতে চাই।’

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘দেশে এখন বিরাজনীতিকরণ চলছে, এতে দেশের প্রতিটি পদে পদে দুর্নীতি চেপে বসেছে। এনআইডিতে উদ্দেশ্যপ্রণীতভাবে তথ্য ভুল করে মানুষকে হয়রানি করা হচ্ছে। পাসপোর্ট করতে গিয়ে ঘুরতে ঘুরতে মানুষ অতীষ্ঠ।’

দলটির সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের সভাপতিত্বে এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার আমিনুল ইসলাম মাহমুদ, মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, মশিউর রহমান রাঙ্গাঁসহ অন্যান্যরা। এ ছাড়াও স্থানীয় অতিথি হিসেবে পটুয়াখালী মহিলা লীগের সভাপতি ও সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য কাজী সুলতানা এমপি।

ছয় বছর পরে পটুয়াখালী জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে জাতীয় পার্টি আয়োজিত সম্মেলনে জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটি নেতৃবৃন্দ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দসহ দলটির সংসদ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সাংগঠনিক ভিত্তি মজবুত ও দলীয় নেতা কর্মীদের সক্রিয় করতে জাতীয় পার্টি জেলা পর্যায়ে সম্মেলন করছে।

এদিকে সম্মেলন উপলক্ষে জেলা শহরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়। সম্মেলন ঘিরে নেতাকর্মীদের মধ্যে উচ্ছ্বাস লক্ষ করা গেছে। সকাল থেকে মিছিল নিয়ে দলে দলে নেতাকর্মীরা সম্মেলনে যোগ দেন।