Amar Praner Bangladesh

দলবেঁধে ধর্ষণ: পুলিশকে জানিয়ে পুরস্কৃত সেই রিকশাচালক

 

 

আমিনুল হক রিপন, চট্টগ্রামঃ

 

চট্টগ্রাম নগরীতে গৃহবধূকে ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচাতে জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করে সহায়তা চাওয়া সেই রিকশাচালককে পুরস্কৃত করেছেন নগর পুলিশের কমিশনার কৃষ্ণ পদ রায়।

বুধবার (২০ জুলাই) দুপুরে সিএমপি কমিশনার ওই রিকশা চালককে নিজ কার্যালয়ে ডেকে এনে পুরস্কার তুলে দেন।

জানতে চাইলে নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (জনসংযোগ) শাহাদাত হুসেন রাসেল প্রাণের বাংলাদেশকে বলেন, ‘রিকশাচালকের বুদ্ধিমত্তা ও সাহসী পদক্ষেপের বিষয়টি জানতে পেরে কমিশনার স্যার নিজেই তাকে কার্যালয়ে ডেকে নেন। তিনি ওই চালকের সাহসের প্রশংসা করেন এবং পুলিশকে সবসময় এভাবে সহযোগিতা দেওয়ার জন্য উদ্বুদ্ধ করেন।

এ সময় কমিশনার স্যার রিকশাচালককে পুরস্কার হিসেবে কিছু টাকা দেন। তবে টাকার পরিমাণ স্যার নিজেই প্রকাশ করেননি।’

এর আগে, গত রোববার (১৭ জুলাই) চট্টগ্রাম নগরীতে ছয় যুবক মিলে দলবেঁধে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া যায়। জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর-৯৯৯-এ তথ্য পেয়ে পুলিশ দ্রুত অভিযান চালিয়ে প্রথমে তিন জনকে এবং পরদিন আরও তিন জনকে গ্রেফতার করে।

ওই দিন রাত ১টার দিকে নগরীর খুলশী থানার জিইসি মোড়ে আক্তারুজ্জামান ফ্লাইওভারের নিচে একটি নির্জন স্থানে রিকশা থেকে নামিয়ে ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করা হয়। নির্যাতনের সময় চিৎকার শুনে রিকশাচালক আব্দুল হান্নান ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে পুলিশের সহায়তা চান। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে গৃহবধূকে উদ্ধারের পাশাপাশি তিন জনকে গ্রেফতার করে।