Amar Praner Bangladesh

দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন ফ্লাইওভার পাচ্ছে গাজীপুরবাসী : যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি

 

 

 

অলিদুর রহমান অলি :

 

দীর্ঘদিন পর পূরণ হতে যাচ্ছে গাজীপুরবাসীর স্বপ্নের ফ্লাইওভার বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও স্বাধীনতা কনসার্টে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে গাজীপুরের রাজবাড়ী মাঠে মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও স্বাধীনতা কনসার্ট অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের আটটি থানায় আটটি ট্রাক ও বাস ষ্ট্যান্ড নির্মাণ করা হবে। গাজীপুরে থমকে যাওয়া কাজ গুলি সচল রাখার জন্য তিনি সিটি কর্পোরেশনের মেয়রকে ধন্যবাদ জানান। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) আসাদুর রহমান কিরণের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য শামসুন্নাহার ভূইয়া এমপি, অতিরিক্ত সচিব ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম, গাজীপুর জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এড. মোঃ আজমত উল্লা খান, সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ আতাউল্ল্যাহ মন্ডল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার জাকির হাসান, জিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার জাকির হাসান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র এড. আয়েশা আক্তার, ৩৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার মেয়র পদপ্রার্থী আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডল, ৪৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ নুরুল ইসলাম নূরু, ৫৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাসির উদ্দিন মোল্লা, সিটি কর্পোরেশনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ আকবর হোসেন, প্রকৌশলী মোঃ মুজিবুর রহমান কাজল, নির্বাহী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) ইব্রাহিম খলিল, যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধারাসহ, সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ, প্রকৌশলীবৃন্দ, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও আওয়ামীলীগ এবং অঙ্গসংগঠনের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভা শেষে বাংলাদেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নগর বাউল জেমস ও তার সঙ্গীরা নেচে, গেয়ে নগরবাসীকে আনন্দে মাতিয়ে যায়। গাজীপুরের ঐতিহাসিক রাজবাড়ী মাঠে মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত পূর্ব নির্ধারিত এ স্বাধীনতা কনসার্টে অংশ নেন তারা। এছাড়া একই মঞ্চে গান পরিবেশন করেন বাংলাদেশের আরেক জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী কোনাল ও আশিক।

অনুষ্ঠানের শুরু বিকেলে হলেও দুপুরের পর দলে দলে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ আসতে থাকেন রাজবাড়ী মাঠে। এ অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ ছিল ১০২ টি আতশবাজি ফোটানো। দর্শকদের মুহুর্মুহু করতালি, মোবাইল ফোনে ধারণ অনুষ্ঠানে এক ভিন্ন মাত্রা যোগ করে।

অনুষ্ঠানটি সুন্দর ও সুশৃঙ্খলভাবে সম্পন্ন করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনির ২৫০ জন সদস্যের পাশাপাশি স্কাউট সদস্যরা নিয়োজিত ছিলেন।