Amar Praner Bangladesh

নবজাতক ছিনিয়ে নেয়ার হুমকি, ৪ হিজড়া আটক

 

 

প্রাণের বাংলাদেশ ডেস্কঃ

 

রাজধানীর উত্তরায় চাঁদাবাজির অভিযোগে চার হিজড়া সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার সন্ধ্যায় ডিএমপির উত্তরা পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মহসীন এ তথ্য জানান।

এর আগে সকালে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানার ৯ নং সেক্টর থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- আলো (২৮), শারমীন (২৩), মিম (৩০) ও রুমা (২৫)।

পুলিশ বলছে, আটককৃত হিজড়ারা নবজাতকের জন্য তার পরিবারের কাছে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করছিল। কিন্তু নবজাতক পরিবারটি কাঙ্খিত চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে নবজাতক ছিনিয়ে নেয়ার হুমকিও দেয় হিজড়ারা।

মোহাম্মদ মহসীন জানান, গত ০৬ অগাস্ট ৯ নং সেক্টরের একটি ভবনের এক ভাড়াটিয়ার একটি কন্যা সন্তান জন্ম হয়। এর মাস দুয়েক আগে একই ভবনের আরেক ভাড়াটিয়ার একটি কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়। অভিযুক্ত হিজড়ারা (তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ) দল বেঁধে এসে ওই ভবনে অনধীকার প্রবেশ করে দুই নবজাতকের জন্য ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। এই চাঁদাকে তারা ‘নবজাতক পাওনা’ বলে দাবি করে। চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তারা নবজাতক নিয়ে যাওয়ার হুমকিও দেয়। একপর্যায়ে তাদের একজন তিন হাজার টাকা দেন। কিন্তু বাকি জন টাকা না দিলে তার ঘরের দরজায় লাথি মেরে, ঘরের সামনে চিৎকার চেঁচামেচি করে ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করে। পরে ভুক্তভোগী নবজাতকের পরিবার কোন উপায় না পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে উত্তরা পশ্চিম থানার একদল পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযুক্ত চার হিজড়াকে আটক করে।

তিনি জানান, এ সময় তাদের নিকট থেকে এক নবজাতক পরিবারের কাছ থেকে চাঁদাবাজি হিসেবে নেওয়া তিন হাজার টাকা উদ্ধার মূলে জব্দ করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার আসামিদেরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রোববার আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এলাকাবাসী, ভুক্তভোগী ও পুলিশ বলছে, আটককৃতরা দীর্ঘদিন ধরে উত্তরা পশ্চিম থানার ৯ নং সেক্টর আব্দুল্লাহপুর এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক হারে দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন যানবাহনে চাঁদাবাজি করে আসছিল। এছাড়া তারা ইয়াবা ব্যবসা, ছিনতাইসহ নানাবিধ অপকর্মের সঙ্গে জড়িত রয়েছে। ইতিপূর্বে তাদের বিরুদ্ধে উত্তরা পশ্চিম থানাসহ বিভিন্ন থানায় মামলা ও জিডি রয়েছে।