Amar Praner Bangladesh

নাজিরপুরে সাংবাদিক পরিচয়ে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা : থানায় মামলা

 

 

আল-আমিন হোসাইন, পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ

পিরোজপুরের নাজিরপুরে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে মো. শামসুল আরেফিন ও তার সহযোগী সোলায়মান কবির ওরফে ইকবাল নামের দুই যুবক এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টায় অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে।

ভুক্তভোগী ওই কলেজ ছাত্রীর মা বাদী হয়ে আদালতে ওই মামলাটি দায়ের করেন। সাংবাদিক পরিচয় দানকারী যুবক শামসুল আরেফিন উপজেলার মুগারঝোর গ্রামের মৃত সেকেন্দার আলীর ছেলে এবং পার্শ্ববর্তী নেছারাবাদ উপজেলার বিন্না নেছারিয়া দাখিল মাদরাসার শিক্ষক।

এছাড়া তার সহযোগী সোলায়মান কবির ওরফে ইকবাল স্থাণীয় মুগারঝোর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবনের ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। দায়ের হওয়া মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২১ মার্চ ওই ছাত্রীর মা আদালতে মামলা দায়ের করলে পিরোজপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মিজানুর রহমান মামলাটি তদন্ত পূর্বক আগামী ২১ এপ্রিলের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নাজিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কে নির্দেশ প্রদান করেন। মামলায় করা অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, এর আগে বিভিন্ন সময় সাংবাদিক পরিচয়ে শামসুল আরেফিন তার সহযোগী ইকবালকে নিয়ে উপজেলার কলারদোয়ানিয়া ইউনিয়নের মুগারঝোর গ্রামের বাসিন্দা দ্বাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রী কলেজে যাওয়া আসার পথে কপ্রস্তাব দেয়।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি বিকেলে ওই ছাত্রী কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পথে অভিযুক্ত আরেফিন ওই ছাত্রীকে কথা আছে বলে রাস্তা থেকে ডেকে মুগারঝোর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নির্মানাধীন ভবনের একটি কক্ষে নিয়ে যায়। সেখানে আগে থেকে অবস্থান করা তার সহযোগী ইকবাল ও আরেফিন গামছা দ্বারা ওই কলেজ ছাত্রীর হাত-মুখ বেধে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। ঘটনার বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত আরেফিন জানান, তার নামে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, সাংবাদিক পরিচয় দানকারী যুবক শামসুল আরেফিন ঢাকা থেকে প্রকাাশিত ‘দৈনিক মানব কণ্ঠ’ ও ‘একাত্তর টিভি’ এর নাজিরপুর প্রতিনিধি হিসাবে পরিচয় দিয়ে প্রেমের চেষ্টা করে আসছেন। তবে এ বিষয়ে জানতে ওই সব মিডিয়ার পিরোজপুর জেলা প্রতিনিধিরা অভিযুক্ত আরেফিন তাদের প্রতিনিধি হিসাবে তাদের (জেলা) কাছে কোন তথ্য নাই বলে তারা (জেলা প্রতিনিধি) জানান।