Amar Praner Bangladesh

নান্দাইলে ভোট পূর্ণগণনার দাবীতে নৌকার প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

 

 

মোঃ ফজলুল হক ভূইয়া, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :

 

গত ৫ জানুয়ারী নান্দাইল ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন চলাকালে ৩নং নান্দাইল ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান মো.আনোয়ারুল হকের উপর বর্বোচিত হামলা ও ভোট কারচুপির প্রতিবাদে এবং দুটি কেন্দ্রের ভোট পূর্ণ গণনার দাবীতে এক সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করে ।

রবিবার(৯ জানুয়ারী) সন্ধ্যা ৭ টায় উপজেলার নান্দাইল ইউনিয়নের রসুলপুর মুক্ত বাজারে এ সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ভোক্তভোগী চেয়ারম্যান মো.আনোয়ারুল হক।

তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ৫ জানুয়ারী নির্বাচনের ৩নং নান্দাইল ইউনিয়নের বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী ছিলাম। ভোট গ্রহণের দিন ১নং দাতারাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্রে ও ৫ নং সাভার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র আমার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী বিভিন্ন অনিয়ম,অবৈধ অস্ত্র প্রদর্শণ ও বল প্রয়োগের মাধ্যমে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের জিম্মি করে। প্রকৃত ভোটের ফলাফল পরিবর্তন করে আমাকে পরাজিত ঘোষণা করে।

তিনি আরো বলেন, নির্বাচনের দিন আমি এর প্রতিবাদ করলে আমার উপর হামলা করে। এসময় , ইউএনওসহ প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের বার বার ফোন করেও তাদেরকে পাওয়া যায় নি। তখন আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মোশাররফ হোসেন কাজলের লোকজন আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার উপর আক্রমণ করে আমাকে ক্ষেতে ফেলে রাখে। আমার নেতাকর্মীরা আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথেও রাস্তায় গতিরোধ করে। এসময় আমার সাথে থাকা লোকজনের ৪-৫ টি মটর সাইকেল ভাংচুর করে। এতে ৭-৮ নেতাকর্মী আহত হয়।

তাছাড়াও তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে নৌকা প্রতীকে মনোনীত করেছেস। কিন্তু উপজেলার শীর্ষ দলীয় নেতারা নির্বাচনে কোনো সহযোগিতা করে নি আমাকে। বরং তারা নৌকার বিরোধীতা করে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকের পক্ষে কাজ করেছেন। নির্বাচনে নৌকা জয়ী হওয়ার পরও ভোট কারচুপির মাধ্যমে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মোশাররফ হোসেন কাজল কে বিজয়ী ঘোষণা করে।

আমি তথাকথিত ফলাফল প্রত্যাখান করছি।এবং অবিলম্বে দাতারাটিয়া ও সাভার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোট পূনরায় গণনার দাবি করছি। প্রধানমন্ত্রীর কাছে নৌকার বিরোধীতাকারিদের বিচার দাবি করছি।

সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সাইদুর রহমান,হাতেম আলী, আ:লতিফ সহ ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার ২২ জন সাংবাদিকবৃন্দ।