Amar Praner Bangladesh

ন্যায় বিচারের আশায় দ্বারে দ্বারে প্রতিবন্ধী পিতা

হুযায়ন কবির, দিনাজপুর (জেলা) প্রতিনিধি: ঃ ন্যায় বিচার না পেয়ে দ্বারে দ্বারে কড়া নেড়ে যাচ্ছেন  দিনাজপুর জেলার সদর উপজেলার ৫নং শশরা ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওর্য়াডের পরজপুর (হঠাৎপাড়া) গ্রামের একজন গরীব প্রতিবন্ধী পিতা মাজেদুর রহমান।
১৮ নভেম্বর শনিবার সকালে তার ০৮(আট) বছর বয়সী কন্যা শিশু বাড়ীর পার্শ্বের লিচু বাগানে প্রাকৃতিক ডাকে সারা দিতে গেলে পার্শ্ববর্তী গ্রাম পরজপুর(শাহাপাড়া)’র মৃত গোপেন্দ্র নাথ রায়ের পুত্র বিষ্ঠু চন্দ্র রায় (৬৫) তাকে লক্ষ্য করে লিচু বাগানের দিকে এগিয়ে যায়। আশে পাশে জনশুন্য থাকার সুযোগে বিষ্ঠু(৬৫) কন্যা শিশুটিকে ধর্ষন করার উদ্দেশ্যে যাপটে ধরে তার পরনের কাপড় ছিড়ে ফেলে এবং ধর্ষন করার চেষ্টা করতে থাকে। এমতবস্থায় শিশুটির চিৎকারে তার দাদী  গ্রামবাসীর সহযোগীতায় তাকে ধর্ষকের হাত থেকে বাঁচিয়ে নিতে সক্ষম হয় কিন্তু বিষ্ঠু পালিয়ে যায়। ঘটনার পরোক্ষনেই উক্ত ওর্য়াডের ইউপি সদস্য এনামুল হককে শিশুটির পিতা-মাতা ও ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী অভিযোগ করলে তিনি বিষয়টির সুষ্ঠ বিচারের প্রতিশ্রুতি দেন। প্রতিশ্রুতি মোতাবেক তিন দিন পর স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিদের উপস্থিতিতে গ্রাম্য সালিশ বসে। সালিশে বিষ্ঠু তার অপরাধ স্বীকার করায় তাকে ৬০(ষাট) হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। জরিমানার টাকা ৫ ডিসেম্বর শিশুটির পরিবারকে প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়। কিন্তু, নিধারিত সময় পেরিয়ে গেলেও জরিমানার টাকা পায়নি শিশুটির পরিবার। ইউপি সদস্য এনামুল হকের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে তার আর কিছুই করার নেই।
গ্রামবাসী ঘটনাটির সুষ্ঠ বিচার প্রত্যাশা করছেন সচেতন সমাজের প্রতি। তারা মনে করেন, এ ধরনের ব্যাক্তির শাস্তি না হলে ভবিষ্যতে এই ঘটনার পুনরাবৃতি হতে পারে। ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে অন্য কোনো শিশু অথবা নারী।