Amar Praner Bangladesh

পাকিস্তানের দুশ্চিন্তা বাড়লো

নিজ মাঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে এখনো পাকিস্তানের দুশ্চিন্তার নাম দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। দেশটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরিয়ে আনার প্রস্তাবে ইন্টার‌্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) সেখানকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণে তিন বছরের জন্য একটি নিরাপত্তা কোম্পানি নিয়োগ দিয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি বলেন, দেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরিয়ে আনার প্রথম পদক্ষেপ হচ্ছে আন্তর্জাতিক একটি নিরাপত্তা কোম্পানি নিয়োগ।

তিনি আরও বলেন, চলতি মাসের শেষ অথবা আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে নিরাপত্তা কোম্পানির লোকজন পাকিস্তান সফরে আসবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

শেঠির উদ্ধৃতি দিয়ে স্থানীয় ডন পত্রিকা জানায়, ‘পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে এটা আইসিসির একটা পদক্ষেপ। তিন দেশ যুক্তরাজ্য, নিউজিল্যান্ড এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত কেন্দ্রিক গঠিত এ কোম্পানিটির যথেষ্ট সুনাম রয়েছে। ’

তিনি আরও বলেন, ‘ফেডারেশন অব ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেটার্সের (ফিকা) একজন প্রতিনিধি ব্যক্তিগতভাবে লাহোরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যাবেক্ষণের জন্য নিরাপত্তা কোম্পানিতে থাকবেন। ’

সাবেক সাংবাদিক ৬৯ বছর বয়সী শেঠি বিস্তারিত জানিয়ে বলেন, সফরটি হবে চারদিনের। দলগুলোর জন্য প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা দানে পাকিস্তানের সক্ষমতার বিষয়টি খতিয়ে দেখবে এ কমিটি।

তিনি বলেন, ‘গত বছর পাকিস্তান সুপার লীগ (পিএসএল) ফাইনাল আয়োজনের আগে লাহোর সফরকালে বিভিন্ন দেশের নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা যে সকল সুপারিশ করেছিলেন সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে চার দিনের এ সফরে পাঞ্জাবের প্রাদেশিক সরকারের সঙ্গে কাজ করবে নিরাপত্তা কোম্পানির প্রতিনিধি দল। ’

নিরাপত্তা দলটি প্রত্যেক বছর পাকিস্তান সফর করবে এবং প্রতিটি সফরের জন্য আইসিসি তাদেরকে চার লাখ ডলার দেবে বলেও জাানান পিসিবি প্রধান।

পিএসএল ফাইনাল চলাকালে গত বছর শ্রীলঙ্কার একটি প্রতিনিধি দলও লাহোর সফর করেছিল এবং শেঠির বিশ্বাস নিরাপত্তা বিষয়ে তাদের ইতিবাচক রিপার্টের কারণেই শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি) সম্প্রতি পাকিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজে লাহোরে অন্তত একটি টি-২০ ম্যাচ খেলতে রাজি হয়েছে।

নিরাপত্তার বিষয়ে সবুজ সংকেত পেলে আগামী মাসে লাহোরে শ্রীলংকা সর্বোচ্চ দুটি টি-২০ ম্যাচ খেলতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।