Amar Praner Bangladesh

পীরগঞ্জ উপজেলায় সড়ক দূর্ঘটনায় জামালপুর জেলার একই পরিবারের ৯জন আহত ২জন নিহত

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলায় সড়ক দূর্ঘটনায় জামালপুর জেলার ইসলামপুর থানার নোয়াপাড়া গ্রামের একই পরিবারের ৯ জন আহত ও নানী-নাতনী সহ ২ জন নিহত হয়েছে। মুমূর্ষ অবস্থায় ফায়ারসার্ভিস ঘটনা স্থল থেকে উদ্ধার করে পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। তৎ সময় পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ ডাব্লিউ এম রায়হান শাহ্, থানা অফিসার্স ইনচার্জ আমিরুজ্জামান হাসপাতালে তাদের খোঁজখবর নেন। পরে নিহত লাশের দাফন ব্যবস্থা ও আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করে তাদের নিজ গন্তব্য ঠিকানায় পৌছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। তথ্য বিবরণীতে জানা যায় গত বুধবার সকালে ঐ পরিবারের লোকজন রাণীশংকৈল উপজেলা এলাকা থেকে কাতিহার বাজার রোড দিয়ে পাগলু নামক রিজার্ভ গাড়ীতে করে পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জে যাওয়ার পথে পীরগঞ্জ উপজেলার বেগুনগাঁও নামক এলাকায় একটি ছাগল বাঁচাতে গিয়ে গাড়ী চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। সে সময় এলাকার লোকজন ঘটনাস্থলে তাদের উদ্ধার করে এবং ফায়ার সার্ভিস ডিফেন্সকে খবর দিলে তারা আহত ও নিহতদের নিয়ে পীরগঞ্জ স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে পৌছে দেয়। এতে আক্তারুলের কন্যা কবিতা (৬) ও তার শ্বাশুড়ী ফজিলা (৬০) কে ডাক্তার মৃত ঘোষনা করেন। গুরুত্বর আহতদের মধ্যে শাহানা ও বকুলকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। অন্যান্য আহতরা হল আক্তারুল, কহিনুর, কুদ্দুস, কবির, কনিকা, সুমাইয়া, শাকিল এবং গাড়ীর চালক ধীরেন ওরফে দোহীরাম। দুপুরের পর পুলিশ আহত ও নিহত লাশ থানায় নিয়ে আসে। শেষে উক্ত পরিবারের লোকজন আহত ও আকর্ষিক ভাবে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত; কবিতার পিতা আক্তারুলকে ৬ হাজার, নিহত ফজিলা’র স্বামি কুদ্দুসকে ২ হাজার, গুরুত্বর আহত শাহানার স্বামী বকুলকে ২ হাজার নগদ অর্থ ও ত্রাণ সামগ্রী প্রদান করেন পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার। এছাড়া পাগলু গাড়ীর মালিক ও পরিবহণ সংগঠনের লোকজন ঐ পরিবারকে পৌছে দেওয়ার ব্যবস্থা ও অন্যান্য সহযোগীতা প্রদান করেন পীরগঞ্জ থানা পুলিশ।