Amar Praner Bangladesh

পুকুরে মাছ ধরতে গিয়ে এক শিশু নিখোঁজ হওয়ার তিন ঘন্টা পর উদ্ধার

ঠাকুরগাও প্রতিনিধি ঃ ঠাকুরগাওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার সাধুবান্ধা পুকুরে মাছ কুড়াতে গিয়ে মুন্নি (১৩) নামের অস্টম শ্রেনীর এক ছাত্রী নিখোজ হওয়ার তিন ঘন্টা পর উদ্ধার হয়েছে। সে সাধুবান্ধা পুকুরে মরা পোনা মাছগুলো কুড়াচ্ছিল। মাছ কুড়াতে কুড়াতে বেশি গভিরতার দিকে যাওয়ার কারণে সে ডুবে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি পর স্থানীয় পয়রত নামের এক ব্যক্তি শিশুটিকে খুজে পায়।
এলাকাবাসি জানান, ড্রেজিং মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করায় অনেক গভিরতার কারণে বাচ্চাটিকে প্রাণ দিতে হলো। এদিকে শিশুটি নিখোঁজ হওয়ার সংগে সংগে ড্রেজিং মেশিনটি তরি ঘরি করে তুলে ফেলা হয়।
প্রত্যক্ষদর্শী আমিরুল ইসলাম জানান, সকাল ১০ টার দিকে অন্যন্য বাচ্চাদের মতো মুন্নি পুকুরে ভাসমান মরা পোনা মাছগুলো কুড়াচ্ছিল। এমন সময় আমাদের চোখের সামনে তাকে ডুবে যেতে দেখলাম। আমিও দৌড়ে গিয়ে নামছি কিন্তু বাচ্চাটিকে আর পাওয়া যায়নি।
দুওসুও উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দু রশিদ জানান, নিখোঁজ মুন্নি গুচ্ছগ্রামের মাজেদুর দর্জির মেয়ে। সে দুওসুও উচ্চ বিদ্যালয়ের অস্টম শেণীর ছাত্রী।
দুওসুও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম জানান, বাচ্চাটি নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই বিভিন্নভাবে উদ্ধারের চেস্টা করেছি এবং পয়রত নামের স্থানী এক ব্যক্তি শিশুটিকে উদ্ধার করেছে। তিনি আরো জানান, কিছু দিন আগে এক মিস্ত্রি আসরের নামাজের সময় নিখোঁজ হয়ে পরদিন ভোরে তাকে অজ্ঞান অবস্থায় পাওয়া যায়। এখানে জ্বীনের আস্তানা রয়েছে বলে শুনেছি।