মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:২২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শ্রমিক লীগের ৫৩ নং ওয়ার্ডের সভাপতি রুবেলকে হত্যার চেষ্টা : থানায় অভিযোগ অস্ত্রধারী নুর আলম নূরুকে গ্রেফতারের জন্য মানববন্ধন হলেও নূরু অধরা : প্রশাসন নিরব তিন দিনের সফরে ঢাকায় বেলজিয়ামের রানি ভূমিকম্প: তুরস্কে ও সিরিয়ায় নিহত ৫ শতাধিক উত্তরা বিজিবি মার্কেট এখন আর ডালভাত কর্মসূচিতে নেই মন্দিরে মূর্তির পায়ে এ্যাড. রফিকুল ইসলাম ও তার স্ত্রী’র সেজদা প্রতিবাদে নির্যাতন ও মামলার শিকার মোঃ জলিল রৌমারীতে অটোবাইক শ্রমিক কল্যাণ সোসাইটির অফিস উদ্বোধন যুবলীগ নেতাদের ছত্রছায়ায় কল্যাণপুরে আবাসিক হোটেলে রমরমা দেহব্যবসা তিতাসের অসাধু কর্মকর্তাদের আতাতে লাইন কাটার নামে প্রতিনিয়ত গ্রাহকদের সাথে ব্ল্যাকমেইলিং করছে প্রতারক চক্র রাজধানীর উত্তরখান থেকে ড্যান্ডি পার্টির ১৬ সদস্য গ্রেপ্তার

পুতিন কি আদৌ বেঁচে আছেন? প্রশ্ন জেলেনস্কির

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ২১ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ২০ Time View

 

 

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

 

সুইজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের বার্ষিক সম্মেলনের তৃতীয় দিনে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি প্রশ্ন করেন, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এখনও বেঁচে আছেন?

যুদ্ধ থামানোর জন্য রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা শুরুর প্রসঙ্গে এমন প্রশ্ন ছুড়েন জেলেনস্কি। তিনি বলেন, ‘কার সঙ্গে আলোচনা করব? সেটাই আমার কাছে স্পষ্ট নয়।

পুতিন কি আদৌ আর বেঁচে আছেন কি না, তা নিয়ে আমার সংশয় রয়েছে। ’
জেলেনস্কির এমন প্রশ্নের পরেই কড়া প্রতিক্রিয়া জানায় রাশিয়া।

প্রেসিডেন্ট পুতিনের বাসভবন ও কার্যালয় ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেন, ‘জেলেনস্কির কাছে যে রাশিয়া এবং পুতিন ‘বড় সমস্যা’ তা আবার স্পষ্ট হয়ে গেল। উনি চান রাশিয়া এবং পুতিনের অস্তিত্ব মুছে যাক। যত তাড়াতাড়ি উনি বুঝতে পারবেন যে, রাশিয়ার অস্তিত্ব আছে এবং থাকবে, ইউক্রেনের পক্ষে ততই মঙ্গল হবে। ’

গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেন সংঘাত শুরু হওয়ার আগে থেকেই পুতিনের স্বাস্থ্য জল্পনা-কল্পনার বিষয়। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম দাবি করে আসছে, ক্যানসারে ভুগছেন পুতিন। এছাড়া পারকিনসন্স রোগসহ বিভিন্ন দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থতায় ভুগছেন তিনি।

যদিও ক্রেমলিন পুতিনের স্বাস্থ্য নিয়ে এসব তথ্য বরাবরই অস্বীকার করে আসছে।

গেল ডিসেম্বরের প্রথম দিকে একটি মার্কিন সংবাদপত্র দাবি করেছিল, গুরুতর অসুস্থ পুতিন। এ অবস্থায় বাসভবনের সিঁড়ি থেকে পড়ে রুশ প্রেসিডেন্ট জখম হন।

পুতিনের স্বাস্থ্য বিষয়ে দাভোসে ১৯ মিনিটের ভাষণে জেলেনস্কির বক্তব্য এমন ছিল যে, পুতিনের স্বাস্থ্য সম্পর্কে কী ধারণা করবেন তা তিনি নিশ্চিত হতে পারছেন না জেলেনস্কি। পুতিন ডাবল লুকলাইক (অবিকল রূপ) ব্যবহার করছেন কিনা? আসলে মস্কো থেকে বিষয়গুলো কে নিয়ন্ত্রণ করছে?

উপসংহারে জেলেনস্কি বলেন, আমি আজ সত্যিই বুঝতে পারছি না, কার সঙ্গে কথা বলব এবং কী নিয়ে কথা বলব! আমি নিশ্চিত নই যে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট, যিনি মাঝে মাঝে পর্দায় উপস্থিত হন। আমি ঠিক বুঝতে পারি না যে, তিনি বাস্তবে আছেন কিনা। আমি বুঝতে পারছি না তিনি এখনও বেঁচে আছেন! নাকি তিনিই বিশেষভাবে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। আসলে কে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন? এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কেন্দ্রে কে? আমার কাছে এখন সত্যিই সেই তথ্য নেই। আমি বুঝতে পারছি না আমরা এখানে কার সাথে আচরণ করছি।

ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট বলেন, আমি বুঝতে পারি না, ইউরোপের বিভিন্ন নেতারা বারবার আশ্বাস দেওয়ার পরেও একটি দেশ (রাশিয়া) কীভাবে বিনা প্ররোচনায় সামরিক অভিযান শুরু করতে পারে। (শান্তি আলোচনায়) রাশিয়াকে প্রথমে কাউকে খুঁজে বের করতে হবে, তারপর কিছু প্রস্তাব করতে হবে।

জেলেনস্কি বলেন, এটি কোনো সিনেমা নয় এটি একটি বড় ট্র্যাজেডি। আমরা এটিকে একটি সাধারণ শান্তিপূর্ণ আলোচনার মতো নিতে পারছি না। আলোচনা কিসের জন্য? আলোচনার অর্থ এই নয় যে আপনি নিজে নিজে শান্তি পাবেন। যেহেতু আমি প্রেসিডেন্ট, আমাকে আমার দেশ মুক্ত করতে যা যা করা দরকার তা করব।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

এই সাইটের কোন লেখা কপি পেস্ট করা আইনত দন্ডনীয়