Amar Praner Bangladesh

“পুলিশ প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে”চুলকাটি এলাকায় জমজমাট জুয়ার আসর : দেখার কেউ নেই

 

 

মেহেদি হাসান নয়ন, বাগেরহাট প্রতিনিধি :

 

বাগেরহাটে ফকিরহাটের সিমান্তবর্তী জেলার চুলকাঠি এলাকার আমা-তলা, শৈয়লার বিল,কদু তলা, পুলিশ লিচু তলা নামক স্থানে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে জমজমাট জুয়ার আসর বসতে শুরু করেছে। বাগেরহা,ফকিরহাট চলকাঠি, বেতাগা শুভদিয়া ও বিভিন্ন গ্রামে আইন শৃংখলা অবনতি ঘটার আশাংকা করা হচ্ছে। অতিদ্রুত এই জুয়ার আসরটি বন্ধ করা না হলে অসামাজিক কর্মকান্ড বৃদ্ধি পাবে বলে সচেতন মহলের ধারনা।

জানা গেছে, দীর্ঘ প্রায় ১৪/১৫দিন ধরে ফকিরহাটের সিমান্তবর্তী ও খুলনা জেলার চুলকাটি লাউবন ঘের পার্শ্বে নির্জন একটি স্থানে বৃহৎ আকারের একটি জুয়ার আসর বসতে শুরু করেছে। ঐ জুয়ার আসরে খুলনা, বাগেরহাট ও পিরোজপুর জেলার বড়বড় জুয়াড়–রা অংশ গ্রহন করছে।

মান্নান সরদার বৈলতলি, আজমল নিকেরী চুলকাটি, শামিম নিকেরী,মাসুদ শেখ আট্টাকা ফকিরহাট, নামের ৪ ব্যক্তি জুয়ার আসরটি পরিচালনা করছে। দুপুর ১হতে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত বিরামহীন ভাবে ঐ জুয়ার আসরে জুয়া খেলা হয়ে থাকে বলে জানা গেছে। জুয়ার আসরে থাকা একাধিক সুদ ব্যবসায়ীরা জুয়াড়–দের অর্থের জোগান দিয়ে বোর্ডটিকে চাঙ্গা করে রেখেছে। শুধু তাই নয়, চড়া সুদে সুদ ব্যবসায়ীরা জুয়াড়–দের কাছে অর্থ লাগাচ্ছে। এঅবস্থায় জুয়া খেলায় হেরে অনেক জুয়াড়– নিঃশ হয়ে পড়েছেন। হকার ও দিনমুজুরীরাও এই জুয়া খেলায় অংশ গ্রহন করে হেরে সর্বশান্ত হচ্ছেন বলেও একাধিক খবর পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চুলকাটি পুলিশ ক্যাম্পের অফিসার ইনচার্জ মোঃ অলিয়ার শেখ বলেন দায়িত্বরত অবস্থায় থাকে এমন কোন অভিযোগ পাইনি, কিন্তু কিছু দিন আগে বাইনতলা নামক স্থানের জুয়ার আসর বসতো সেখানে অভিযান চালায়। যদি ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়, অবশ্যই আমাদের অভিযান চলমান থাকবে।

এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য পুলিশ প্রশাসরসহ উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সচেতন মহল।