প্রত্যেক চালকের ডোপ টেস্ট করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

মাদকাসক্তি শনাক্তে চালকদের ডোপ টেস্ট করানোর নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পাশাপাশি তাদের জন্য প্রশিক্ষণ ও বিশ্রামগারারেরও ব্যবস্থা করতে হবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার ‘জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস-২০২০’ উদযাপন উপলক্ষে বিআরটিএ মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে তিনি এ কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নে মধ্য ও দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে সরকার। রাজধানীর সাথে প্রতিটি ইউনিয়নের যোগযোগ নেটওয়ার্ক গড়েতোলা হচ্ছে।

শেখ হাসিনা বলেন, সারাদেশের ব্যাপক সড়ক উন্নয়ন পাশপাশি দুর্ঘটনা কমাতে সড়কের বাকগুলো সংস্কার করে সোজা করা হচ্ছে। মহাসড়কে অতিঝুঁকিপূর্ণ ১৪৪টি ব্লাক স্পট চিহ্ণিত করে তার উন্নয়ন করা হচ্ছে। চালকদের ক্লান্তি দূর করতে মহাসড়কের পাশে এরই মধ্যে চারটি বিশ্রামাগার করা হয়েছে। ভবিষ্যতে সব মহাসড়কের পাশেই একই ব্যবস্থা করা হবে।

অনুষ্ঠানে সড়ক দুর্ঘটনা কমাতে সবাইকে ট্রাফিক আইন মেনে চলার প্রতি গুরুত্ব দিতে বলেন তিনি। এজন্য স্কুল পর্যায় থেকেই শিশুদের সড়ক আইন সম্পর্কে জানাতে সবাইকে অনুরোধ জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জেব্রা ক্রসিংয়ের বাইরে কারো মৃত্যু হলে কেউ দায় নেবে না। সে দায়িত্ব যে রাস্তা পার হবে তার। দরকার হলে প্রতিটি স্কুলে একজন শিক্ষককেই দায়িত্ব দিতে হবে ছুটি হলে শিক্ষার্থীদের রাস্তা পার করে দিবে। শুধু চালককে দোষ দিলে হবে না, পথচারীকেও সচেতন হতে হবে। যত্রতত্র রাস্তা পার হওয়া যাবে না।

তিনি আরো বলেন, করোনার কারণে সড়ক সহ বিভিন্ন উন্নয় কাজে কিছুটা বিঘ্ন হয়েছে। তবে শিগগিরি তা কাটিয়ে ওঠা যাবে। এসময় করোনা দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় সবাইকে সুরক্ষিত থাকার পাশপাশি পরিবেশ রক্ষায় সার্জিক্যাল মাস্কের পরিবর্তে কাপড়ের মাস্ক ব্যবহারের পরামর্শ দেন সরকার প্রধান।