Amar Praner Bangladesh

ফখরুল ইসলাম মজুমদারকে মেম্বার হিসেবে চান ৪ নং মৌচাক ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডবাসী

 

 

শহিদুল ইসলামঃ

৪ নং মৌচাক ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডকে আধুনিকায়ন করার লক্ষ্যে, আগামী ১৫ই জুন নির্বাচনে ৬ নং ওয়ার্ড বাসীর সকলের কাছে তালা মার্কা নিয়ে দোয়া প্রত্যাশী মোঃ ফখরুল ইসলাম মজুমদার। আসন্ন ১৫ই জুন ২০২২ ইং রোজ বুধবার ৪ নং মৌচাক ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী সৎ, নির্ভীক ও তরুণ সমাজসেবক মোঃ ফখরুল ইসলাম মজুমদারকে তালা মার্কায় ভোট দিয়ে এলাকার উন্নয়ন ও জনগণের সেবা করার সুযোগ দিন।

তিনি বলেন, আমি যদি আগামী নির্বাচনে মেম্বার হিসাবে জয়ী হতে পারি, তাহলে আমি আমার ওয়ার্ডের যত উন্নয়নমূলক কাজগুলো আছে সকলকে সাথে নিয়ে সমাপ্ত করব এবং আমার ৬ নং ওয়ার্ডকে একটি রোল মডেল হিসেবে রূপান্তর করবো। গরীব দুঃখী মানুষের নেতা হিসেবে আমি আপনাদের পাশে সব সময় ছিলাম এবং থাকবো, গরীব দুঃখী মানুষের পাশে থেকেই তাদের জীবন থেকে দারিদ্রতা দূর করার চেষ্টা করবো। ইনশাআল্লাহ।

মোঃ ফখরুল ইসলাম মজুমদার তিনি আরো বলেন- আমার যে স্বপ্ন, আপনারা চাইলে পূরণ করতে পারবেন, স্বপ্ন পূরনের জন্য আমি আমার ওয়ার্ডবাসীর নিকট দোয়া ও আর্শীবাদ চাই। আগামী দিনগুলোতে আমি যেন ৬নং ওয়ার্ড এর মেম্বার পদে নির্বাচিত হয়ে নিজের সর্বোচ্চ শ্রম দিয়ে আপনাদেরকে যেন সেবা করে যেতে পারি, সেই প্রত্যাশানুযায়ী কাজ করে যাচ্ছি।

সারা বিশ্ব যখন করোণা ভাইরাসের কারণে মৃত্যুর মিছিল দেখতে পাচ্ছিল, ঠিক তখনই বাংলাদেশে করোনা মহামারী ছড়িয়ে পড়ার আগেই জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে লকডাউন ঘোষণা করেন, তারপরে অসহায় হতদরিদ্র মানুষগুলোর মাঝে খাবার পৌঁছে দেওয়ার জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেন এবং প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী হিসেবে বিভিন্ন ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দেন প্রত্যেকটি শহর-থেকে শুরু করে গ্রামের সকল অসহায় হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা দিয়েছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের পক্ষ থেকে যতটুকু সম্ভব অসহায় হতদরিদ্র মানুষ গুলোর পাশে দাঁড়ানোর, আর সেই নির্দেশনা পাওয়ার পরে নিজের ব্যক্তিগত অর্থায়নে জনসাধারণকে বিভিন্ন সাহায্য সহযোগিতা করেছি।

মোঃ ফখরুল ইসলাম মজুমদারের বিষয়ে এলাকার লোকজন বলেন, আমরা ধন্য, এই মানুষটার কাছে ধনী-গরীবের কোন ভেদাভেদ নেই, যেকোনো মুহূর্তে তার কাছে গেলে তিনি সমস্যার সমাধানে এগিয়ে আসেন, যেকোনো মানুষের বিপদের কথা শুনলে ছুটে যান তার বিপদ উদ্ধারের জন্য। তার কার্যক্রমে এবং তার কার্যকরী পদক্ষেপের কারণে কমে আসছে ছিনতাই, সন্ত্রাস, মাদক, নারী নির্যাতনসহ বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপ। এছাড়াও বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসায়, মন্দির এবং গির্জায় নিজস্ব অর্থ থেকে যতটুকু পারেন সহায়তা করেন, ৬নং ওয়ার্ডবাসীর কাছে তার ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।