Amar Praner Bangladesh

বঙ্গবন্ধু ছিলেন সকল গুণের অধিকারী : জামিল হাসান দুর্জয়

 

শেখ রাজীব হাসান, গাজীপুরঃ

 

গাজীপুরে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ১৫ই আগস্ট বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক সিবস উপলক্ষে গাজীপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে শোক সভা, দোয়া মাহফিল ও গনভোজ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। ৩১শে আগস্ট বুধবার বেলা ৩ঘটিকার সময় নয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে এই শোক সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

গাজীপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক সদস্য মোঃ শফিকুল ইসলাম সফি’র সভাপতিত্ব ও ভাওয়ালগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক শেখ মোঃ এমদাদুল হক এর সঞ্চালনায় আয়োজিত শোক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব এড, জামিল হাসান দুর্জয়।

উক্ত শোক সভায় বক্তব্য রাখেন, গাজীপুর সদর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও প্রভাবশালী নেতা মোঃ বেলায়েত হোসেন, মোঃ জালাল উদ্দিন, মোঃ শাহাজাহান মিয়া, মোঃ মোশাররফ হোসেন দুলাল, মোঃ নাসির উদ্দিন মৃধা, বাবু ধীরেন্দ্র চন্দ্র বর্মন, শাহিন আলম মৃধা, মোঃ জসিম উদ্দিন, মোঃ হাসান আল মাহমুদ, মোঃ আজাহারুল ইসলাম, ডাঃ মোঃ মোশাররফ হোসেন, মোঃ নজরুল ইসলাম মাস্টারসহ বিভিন্ন অঙ্গ সহযোগী সংগঠন ও ইউনিট পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।

যুবলীগ নেতা বেলায়েত হোসেন বলেন, আমার স্বপ্নের নেতা শেখ মুজিবর রহমান। তিনি বাঙালী জাতির মুক্তির ত্রাতা হিসেবে শেখ মুজিবর রহমান বাংলার মাটিতে জন্মেছিলেন, বাংলাদেশের মানুষের উন্নয়ন ও মুক্তি ছাড়া তাঁর অন্য কোন ভাবনা ছিলোনা। বঙ্গবন্ধু ছিলেন রাজনীতির কবি এবং অবিসংবাদিত জাতীয়তাবাদী নেতা। তাঁর মতো জাতীয়তাবাদী নেতা সমসাময়িক বিশ্বে ছিল বিরল। তিনি স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখেছেন, বাঙালীকে স্বপ্ন দেখিয়েছেন এবং স্বাধীনতা উপহার দিয়েছেন। আমরা শ্রদ্ধার সাথে স্বরণ করি প্রিয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের স্বপ্ন পুরনে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে আমরণ আমার প্রিয় নেতা জামিল হাসান দুর্জয় ভাইয়ের পাশে থাকবো।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জামিল হাসান দুর্জয় বলেন, প্রথমেই শ্রদ্ধার সাথে স্বরণ করছি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী স্বাধীনতার মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কে। তিনি শুধু একজন রাজনৈতিক নেতাই ছিলেন না, তিনি মানুষ হিসেবে ছিলেন সকল গুণের অধিকারী। তিনি কৃষিশিক্ষা, কৃষি গবেষণা ও সম্প্রসারণের গোড়া পত্তন করেন। আমরা কথা ও পোষাকে নয় কাজের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে ভালবেসে স্ব স্ব অবস্থান থেকে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করলেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে সক্ষম হবো। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের স্বপ্ন পুরনে যে কোন লড়াই সংগ্রামে পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ্।

বক্তব্য শেষে জামিল হাসান দুর্জয় ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদের আত্মার মাগফেরাত এবং দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি, মঙ্গল কামনা করে বিশেষ দোয়া করেন। দোয়া শেষে গণভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।