Amar Praner Bangladesh

বাংলাদেশে ফিড খাদ্য উৎপাদনে পরিবেশ বান্ধবে প্রভিটা গ্রুপ হতে পারে আদর্শ

শের ই গুল:

নারায়ণগঞ্জ জেলার রুপগঞ্জ উপজেলায় বিশাল এলাকা নিয়ে স্থাপিত বাংলাদেশের অন্যতম প্রভিটা গ্রুপ লিমিটেড। এই প্রতিষ্ঠানটিকে মালিক কর্তৃপক্ষ অত্যন্ত দক্ষতার সাথে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে যুগউপযোগী পরিবেশ বান্ধব হিসেবে তৈরী করেছে। এর উৎপাদিত পণ্য এর উপকারীতা নিত্য প্রয়োজনীয় অনেক গুরুত্বপূর্ণ ফিড খাদ্যকে সহজ লভ্যকরে দেশ ও জাতীর উপকারে এবং অর্থনৈতিক কর্মকান্ডকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে এবং তার সাথে বিশাল জনগোষ্টিকে তাদের কর্মসংস্থান-এর ব্যবস্থা করে দিয়েছে। বর্তমানে এই প্রতিষ্ঠানটির উৎপাদিত পণ্য দেশেরে চাহিদা মিটিয়ে দেশের বাহিরে রপ্তানি করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের মাধ্যমে দেশের রাজস্ব বৃদ্ধিতে সক্রিয় ভূমিকা পালন করছে। প্রতিবছর বাৎসরিক উৎপাদনের আলোকে সরকারকে কোটি টাকা ভ্যাট-ট্যাক্স পরিশোধ করে আসছে, বর্তমানে এখানে বহুসংখ্যক লোক ও কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত আছে, এই প্রতিষ্ঠান থেকে অভিজ্ঞতা নিয়ে বিশ্বের বড় বড় ফিড কোম্পানিতে চাকুরি নেয়ার সুবিধা ভোগ করে দেশের সুনাম বৃদ্ধি করছে এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নেও যতেষ্ট ভূমিকা রাখছে। এখানে বিনামূল্যে সকল কর্মচারী ও কর্মকর্তার চিকিৎসার সু-ব্যবস্থা আছে, প্রতিষ্ঠানের সৌন্দর্য্য বর্ধনের পাশা-পাশি কর্মকর্তা কর্মচারীদের চিত্ত বিনোধনের জন্য প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরে খেলাধুলার ব্যবস্থা রয়েছে। অভ্যন্তরে সুসজ্জিত মসিজদ নির্মানের পাশাপাশি স্ব-ধর্মীয় চর্চার সুব্যবস্থা রাখা আছে। প্রতিষ্ঠানের মালিকের বাণী সকলেই পিতা-মাতার সাথে ভাল ব্যবহার করবে এবং ধর্মীও কৃষ্টি কালচার মানতে হবে, যদি কেউ না পারে সে প্রতিষ্ঠান থেকে অব্যহতি নিলে আমরা তার কাছে কৃতজ্ঞ থাকবো। খোঁজ নিয়ে জানা যায় যে, এই কোম্পানিকে আরও পরিবেশ বান্ধব করে গড়ে তুলতে পরিবেশ অধিদপ্তরের চাহিদা মোতাবেক উপযুক্ত পদক্ষেপ সমূহ গ্রহণ করে। আরও পরিবেশ বান্ধবে নতুন কোন প্রযুক্তি আছে কিনা এই বিষয়ে বিশেষজ্ঞ দল এনে তাদের দেওয়া মতামত অনুসারে প্রয়োজনীয় সংস্কারের পদক্ষেপ গ্রহনের পরিকল্পনা করছে। পরিশেষে, কোম্পানীর পরিচালনা পর্ষদ এবং দানবীর, রামগঞ্জ উপজেলার বিশিস্ট শিল্পপতি, গরিবের বন্ধু,সমাজ সেবক, প্রভিটা গ্রুপ এর চেয়ারম্যান, জনাব মো: নুর নবী এই প্রতিষ্ঠানটিকে যুগউপযোগী পরিবেশ বান্ধব করে গড়ে তুলতে দৃঢ়প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এ বিষয়ে প্রয়োজনে বিদেশ থেকে বিশেষজ্ঞ দল এনে তাদের মতামতের আলোকে প্রতিষ্ঠানটিকে আরও আধুনিক পরিবেশ বান্ধব হিসাবে গড় তুলতে সকল ধরনের পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে কর্তৃপক্ষ অগ্রণী ভূমিকা রাখবেন মর্মে বিশিষ্টমহল আশা করে। ইতিমধ্যে একটি কু-চক্রী মহল এই বিশাল জনশক্তি দিয়ে পরিচালিত প্রতিষ্ঠানটিকে ক্ষতিগ্রস্থ করার হীনমন্য চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়ে বিভিন্ন বদনাম করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে,পরিবেশ দূষিত হচ্ছে, আশে-পাশের পরিবেশ বিনষ্ট হচ্ছে বলে মিথ্যা অপ-প্রচার চালাচ্ছে যা কর্তৃপক্ষ মনে করে সম্পূর্ণ বিষয়টি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। দৈনিক আমার প্রাণের বাংলাদেশ সরেজমিনে তদন্ত করে দেখে প্রভিটা গ্রুপ একটি আদর্শ এবং পরিবেশ বান্ধব। প্রতিষ্ঠানটি খাদ্যের বিশাল একটি অংশ মাছ, মুরগী, গবাধী পশু সহ সকল প্রকার সুষম খাদ্যের যোগান দিয়ে আসছে। সোনার বাংলাদেশে এরকম একটি প্রতিষ্ঠান কোন অসাধু চক্রান্তে ক্ষতিগ্রস্থ হবে তা বাংলার জনগণ রুপগঞ্জবাসী কখনোই মেনে নেবে না। বাংলাদেশে এরকম একটি প্রতিষ্ঠান নিঃসন্দেহে আধুনিক রুপকারে দেশের উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকায় অগ্রণী হবে।