Amar Praner Bangladesh

বাংলাদেশ মেডিকেল এসেসিয়েশন (বিএমএর) পুনরায় সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় ডাঃ বাহারুল আলমকে সংর্বধনা

 

 

মেহেদী হাসান, বাগেরহাট :

 

শনিবার বিকেলে ৫ টায় লখপুর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এপিসি ফার্মাসিটিক্যাল লিঃ এর নিজস্ব কার্যালয়ে এ সংর্বধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন লখপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম ডি সেলিম রেজা, বিশিষ্ট সমাজসেবক লখপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি এস এম গোলাম রাব্বানী, অন্যানদের মধে উপস্থিত ছিলেন মোজাফফর হোসেন মোড়ল,জাহিদ ইকবাল, মোশাররফ হোসেন, তৌহিদুর ইসলাম তুহিন, আলাউদ্দিন শেখ সহ অনেকে।

সংর্বধনা অনুষ্ঠানে বি এম এর নব নির্বাচিত সভাপতি ডাঃ বাহারুল আলম বলেন আমি আপনাদের ভালোবাসায় সিক্ত।আমার জন্য সকলে দোয়া করবেন ডাক্তারি পেশাটাকে যেন সেবার মনমানসিকতা নিয়ে জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে পারি সে লক্ষে কাজ করে যাবো।

এর আগে গত ১৫ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ হয়। গণনা শেষে রাতে ফল ঘোষণা করা হয়।

নির্বাচনে ২ হাজার ১৫০ ভোটারের মধ্যে ১ হাজার ৬৭৯ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

আওয়ামী লীগ সমর্থিত চিকিৎসকদের সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) নেতারা দুটি প্যানেলে ভাগ হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। বিএনপি সমর্থিত ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) চিকিৎসকরা নির্বাচনে অংশ নেননি।

সভাপতি পদে ডা. বাহার পেয়েছেন ৯২২ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ডা. কাজী হামিদ আজগর পেয়েছেন ৭৩৬ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে ডা. মেহেদী নেওয়াজ পেয়েছেন ৯৭২ ভোট। তার ছাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী ডা. জিল্লুর রহমান তরুণ পেয়েছেন ৭০২ ভোট।

নির্বাচনে ডা. বাহার-ডা. তরুণ পরিষদ সভাপতি, একটি সহ-সভাপতি, পাঁচটি সম্পাদক এবং পাঁচটি সদস্যসহ ১২টি পদ পেয়েছে। অন্যদিকে ডা. আজগর-ডা. মেহেদী নেওয়াজ পরিষদের প্রার্থীরা সাধারণ সম্পাদক, দুটি সহসভাপতি, চারটি সম্পাদক এবং পাঁচটি সদস্যসহ ১২টি পদে জয় পেয়েছেন।