Amar Praner Bangladesh

বিজ্ঞাপনে বিরাট নৈতিকতার পরিচয় দিলেন কোহলি

ভারতের ক্রিকেট ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলি  আর সফট ড্রিঙ্কস এবং ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপনে অভিনয় করবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সফট ড্রিঙ্কসকে না বলার কারণ, তাতে জাঙ্ক ফুড রয়েছে।

আর ফেয়ারনেস ক্রিম বর্ণ বিদ্বেষকে জাগিয়ে দেয়।

ভারতে বিজ্ঞাপন জগতে বলিউডি তারকাদেরই একাধিপত্য। তবে তাতে প্রায়শই কামড় দেন ক্রিকেট তারকারা। এখন সেই কাজটাই করছেন বিরাট। সাফল্য, আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্ব, সুযোগ্য নেতৃত্বের কারণে বিজ্ঞাপনী দুনিয়ায় বিরাটের চাহিদা আকাশ ছোঁওয়া। এই অবস্থায় নৈতিকতার বিষয়টিকে বিরাট উঁচুতে তুলে ধরলেন কোহলি।

সূত্রের খবর, বিরাট কেবল সেই সব পণ্যেরই বিজ্ঞাপন করবেন যেগুলো তিনি ব্যবহার করেন। শনিবার বিজ্ঞাপনী চুক্তির পুনর্নবীকরণ করলেন বিরাট। সেখানেই বিরাট একগুচ্ছ শর্ত দিয়েছেন। ২০১১ সাল থেকে পেপসির বিজ্ঞাপন করছেন তিনি। এপ্রিলে সংস্থার সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়েছে। বিরাট নতুন করে আর চুক্তি করেননি। বলেছেন, তিনি ক্রেতাকে এমন পণ্য কিনতে বলতে পারেন না যা তিনি ব্যবহার করেন না।

কোহলির বিজ্ঞাপনী এজেন্ট ‘‌কর্নারস্টোন’‌ এই নিয়ে কিছু মন্তব্য করেনি। কোহলির সঙ্গে কাজ করেছেন এমন এক ব্যক্তি বলেছেন, ‘‌ফেয়ারনেস প্রোডাক্টের বিজ্ঞাপন করার অর্থ একজন কেবল গায়ের রং দেখিয়ে সফল হতে পারেন–এই বার্তা দেওয়া। এই নীতি বিরাটের মূল্যবোধের বিরোধী। ’‌

কোহলি এখন দিন পিছু সাড়ে চার থেকে পাঁচ কোটি টাকা নেন। তা বিজ্ঞাপনের শ্যুটিং হতে পারে বা পণ্যের প্রচারও হতে পারে। পেপসি এখনও জানায়নি তারা কত টাকা দিয়েছে বিরাটকে। তবে ক্রীড়া পণ্য উৎপাদক সংস্থা পিউমা এবং টায়ার প্রস্তুতকারক এমআরএফের থেকে ১০০ কোটি টাকা বিরাট পেয়েছেন।