Amar Praner Bangladesh

বিল্ডিং তদারকির নামে কথিত সাংবাদিকরা হয়রানি করছে বলে অভিযোগ বাড়ীর মালিকদের

 

প্রাণের বাংলাদেশ ডেস্ক :

 

প্রত্যেকটি বিষয় তদারকির জন্য রয়েছে সরকারী ভিন্ন ভিন্ন দপ্তর। অনেক কষ্টে মানুষের জীবনের শেষ সম্বল টুকু দিয়ে তৈরি করে বসবাসের জন্য বাড়ী। নিজে একটি ফ্ল্যাটে থেকে অন্যান্য ফ্ল্যাট বা রুম ভাড়া দিয়ে চলে জীবনের শেষ দিন গুলো। সরকার আসে সরকার যায়, আসে নতুন নতুন নিয়ম ও আইন। রাজউকের নিয়মের মধ্যেও রয়েছে বিভিন্ন রকম পরিবর্তন। একসময় চেয়ারম্যান-মেয়র ও উপজেলা চেয়ারম্যানরাও দিয়েছে বাড়ী করার প্ল্যান।

এসব বিষয় গুলোকে পুঁজি করে কিছু কথিত নামধারী সাংবাদিকরা বিভিন্ন বিল্ডিং বাড়ীর ছবি তুলে বিল্ডিংয়ের মালিকের মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করে রাজউকের ভয় দেখিয়ে করছে চাঁদাবাজী। এমনই একটি গ্রুপ উত্তরা আব্দুল্লাহ্পুর থেকে উত্তরখান-দক্ষিণখান-তুরাগ সহ বিভিন্ন এলাকায় সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ঘুরে বেড়ায় বিভিন্ন অলিতেগলিতে। শুধু আকাশের দিকে তাকায় কে কত বড় বিল্ডিং করেছে? কারো খুত পেলেই ঝাপিয়ে পড়ে কিভাবে তার বারোটা বাজানো যায়। এদের মধ্যে কারো কারো সাথে রাজউকের বেশ কিছু অসাধু কর্মকর্তাদের সাথে রয়েছে আতাত। মাঝে মাঝে তাদেরকে ডেকে কোন বিল্ডিংয়ের বর্ধিত অংশ ভাঙ্গতে পারলে আশেপাশে ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক।

ভুক্তভোগী আমেনা থাকে ফায়দাবাদ, তার স্বামী অবসরে এসে একটি ছয় তলা বাড়ী করে চার ছেলে মেয়ে স্ত্রী রেখে ইন্তেকাল করেন। তাদের সংসার চলে বাড়ীর ভাড়া দিয়ে। কথিত সাংবাদিকরা তার বাড়ী রাজউক ভেঙ্গে দিবে ভয় দেখিয়ে হাতিয়ে নিয়েছে এক লক্ষ টাকা। এরকম ভুক্তভোগীদের অভাব নেই। তাদের বক্তব্য সাংবাদিক অনিয়ম দেখলে সংবাদ প্রকাশ করবে। কিন্তু ভয় দেখিয়ে ব্ল্যাক মেইল করে টাকা আদায় করা চাঁদাবাজির সমতুল্য। যা প্রকৃত সাংবাদিকদের কাজ নয়। তাদের কাছে জানতে চাইলে আপনারা কেন টাকা দেন? তারা জানায়, আমাদেরকে রাজউক দিয়ে অভিযান করিয়ে বিল্ডিং ভেঙ্গে দেওয়ার ভয় দেখায়।

এদের মধ্যে কিছু কথিত সাংবাদিকরা বিল্ডিংয়ের মালিককে অফিসে ডেকে সেটেলমেন্ট করে বলে জানা যায়। ইতিমধ্যে এসব বিষয় নিয়ে রাজধানীর বিভিন্ন থানায় অনেক চাঁদাবাজির মামলা হয়েছে বলে জানা যায়। বিষয়টি নিয়ে অনুসন্ধান মূলক সংবাদ প্রকাশ হবে দৈনিক আমার প্রাণের বাংলাদেশে।

কোন ভুক্তভোগীর বিল্ডিং মালিক কথিত সাংবাদিক ও কিশোর গ্যাংয়ের দ্বারা হয়রানি বা চাঁদাবাজির শিকার হলে আমাদেরকে মেইল করে তথ্য দিতে পারেন। আমরা আপনাদের বিষয়টি সম্পূর্ণ গোপন রাখবো। ই-মেইল- [email protected] , ভিজিট করুন- www.amarpranerbangladesh.com