Amar Praner Bangladesh

ব্যাংকের নামকরণ করে অবৈধভাবে ভূমি দখল করে সাইনবোর্ড টাঙিয়েছেন মাহবুব রহমান

 

(গাজীপুরে ভূমি দখল করতে নাটকীয় ভাবে ব্যাংকের সাইনবোর্ড টাঙানো এই ভূমিদস্যুদের ছবি প্রকাশ দৈনিক সময়ের কন্ঠে)

 

 

সামছুদ্দিন জুয়েলঃ

 

গাজীপুর মহানগর ৩ নং ওয়ার্ডের বারেন্ডা মৌজায় অসহায় পরিবারের ভূমি দখল করতে নাটকীয় ভাবে পূবালী ব্যাংক ও ইসলামি ব্যাংকের নাম করন করে সাইনবোর্ড টাঙিয়েছেন বিশ্বাস ফিড পোল্ট্রি এর প্রোপার্টিজ এর মালিক মাহবুব রহমান, গণমাধ্যম কর্মীরা প্রকাশ্য ঘটনাটি উপলব্ধি করেন, শত শত জনতার সম্মুখে মাহবুব রহমানের নিজে উপস্থিত থেকে ব্যাংকের নাম করন করে সাইনবোর্ড টাঙিয়েছেন, অবৈধ দখল বাজ মাহবুব রহমান সাংবাদিকদের বলেন এই জমির পেপার্স ব্যাংকের নিকটে জমা রেখে লোন উত্তোলন করেছি । একই জমির ভুয়া দলিল কয়টা ব্যাংকে মটগেজ রাখা যায়, যাচাই ছাড়া মিথ্যার ও একটা সীমা থাকে সেটাও অতিক্রম করেছেন পরিসম্পদ লোভী বাটপারের দল, এরা রাঘব বোয়ালের মত সব কিছু গিলে খাচ্ছেন, যখন কোর্টে মামলা চলমান বিচারের রায় প্রায় শত ভাগ জমির মালিক হাবিল গং এর অনুকুলে, ঠিক তখনই মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন নাটকে উপনীত হয়ে সাইনবোর্ড টাঙানো, সিনেমার দৃশ্যকেও হার মানিয়ে চলেছেন মাহবুব রহমানের নেপথ্যে নাটের গুরু হিসাবে কাজ করে যাচ্ছেন কাউন্সিলর সাইজ উদ্দিন মোল্লা ও তার ভাই ইদ্রিস মোল্লা
ও ভূমি সন্ত্রাসী মুকুল গং,আর কত নির্যাতনের শিকার হবে অসহায় পরিবার,মাহবুব রহমানের নেই কোনো প্রকার কাগজ পত্রাদি তবে আছে তাদের সন্ত্রাস বাহিনী ও জাল দলীলের গুরু মহাগুরু এই সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করতে, সঠিক তদন্ত পর্যবেক্ষন করার জন্য প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন গাজীপুরের অসহায় নির্যাতিত নিপীড়িত পরিবার।

অনুসন্ধানে জানা যায় মাহাবুব রহমান গ্যাং রাষ্ট্রদ্রোহী কাজের অর্থ যোগানদাতা।তার রয়েছে শিবিরের অস্ত্র ভান্ডার। যে অস্ত্র ভান্ডার ব্যবহার করে- রাষ্ট্রদ্রোহী মাহাবুব রহমান – ভূমি দখলের চেষ্টা করে। ১৯৮০ সালের পর ভূয়া কাগজপত্র তৈরি করে ভূমি দখলের চেষ্টা করে আসছে বলে জানায় ভূমি মালিক হাবিল। অপরদিকে হাবিলের ভূমি পাওয়ার গ্রহীতা বোরহান হাওলাদার জসিম জানান- সেটেলমেন্ট কার্যালয় হতে- উক্ত ভূমি পরিদর্শন করতে গেলে মাহাবুব ও তার বিশ্বাস পল্ট্রির শতাধিক গুন্ডা বাহিনীর সদস্য নিয়ে তাদের উপর আক্রমন করে ভূমি দখলের চেষ্টা করে।
এর সাথে জড়িত কাউন্সিলর সাইজুউদ্দিন মোল্লা ও তার ভাই ইদ্রিস- আসলে তাদের কোন সঠিক কাগজ পত্রাদি নেই। তারপরও তারা টুর্ণামেন্ট ছাড়বে বলে মাঠ দখল করে বাঁশ দিয়ে বেড়া দেন। যার সাথে জড়িত কৃষ্ণ

ও ওসি মাহবুবে খোদা বক্স আরো জানা যায় এই ওসি কাশিমপুরে

যোগদানের পর ভূমিদস্যুদের জামাত শিবিরদের নেতৃত্ব দিয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন থানার রাজত্ব এবং তার ব্যাপারে গাজীপুর জেলার পুলিশ কমিশনার কে মুঠোফোনে করে নিজস্ব প্রতিবেদক জানালে যেকোনো বিষয়ে অসহায় পরিবার কোন পুকারে সেবা পাচ্ছেন না থানায় তারপর পুলিশ কমিশনার বলেন আমরা তদন্ত করব।অতঃপর ভূমিটি ৫৪৫/৫৯ নং বারেন্ডা মৌজার সিএস ও এস এ ২৪৩ নং দাগের সৃষ্ট আর এস ৯৩৮, ৯৪০, ৯৪১ ও ৯৪২ নং দাগের হাল জরিপ- খতিয়ান নং ৫১৭, ৭৩২,১২৮১, ১৭৫০, ১৭৭৬ এ ৩.৬৯ একর। অবৈধ কর্মকান্ডে অর্থ যোগানদাতা ব্যাংকের বিচার চায়-বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে-ভূমি মালিক হাবিল ও হাবিলের ভূমি পাওয়ার গ্রহীতা দৈনিক সময়ের কন্ঠের সম্পাদক মোঃ বোরহান হাওলাদার জসিম প্রমুখ। সময়ের অনুসন্ধান চলছে।