Amar Praner Bangladesh

ভাণ্ডারিয়ায় স্কুল ভবনের ছাদের পলেস্তর খসে শিক্ষার্থী আহত

 

ভান্ডারিয়া প্রতিনিধি :

 

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া বিদ্যালয়ের শেণী কক্ষে পাঠদান কালে জ্বরাজীর্ণ স্কুল ভবনের ছাদ ধসে আধুনিকা খান নামে তৃতীয় শ্রেণী পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রী গুরুতর আহত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলার ৬৯ নম্বর উত্তর ভাণ্ডারিয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহত স্কুলছাত্রী ওই বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। তাকে স্কুল কর্তৃপক্ষ উদ্ধার করে ভাণ্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

সে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা দপ্তরের অফিস সহকারি ও সদরের ষ্টীমারঘাট মহল্লার বাসিন্দা আবুল কালাম আজাদ খান এর মেয়ে ।

সংশ্লিষ্ট স্কুল ও আহত স্কুল ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার ৬৯ নম্বর উত্তর ভাণ্ডারিয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আজ বৃহস্পতিবার তৃতীয় শ্রেণী কক্ষে যথারীতি পাঠদান চলছিলো। হঠাৎ জরাজ্বীর্ণ স্কুল ভবনের ছাদের পলেস্তরা শ্রেণী কক্ষে খসে পড়ে। এসময় ওই বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণী ছাত্রী আধুনিকার ঘাড় ও বাহুতে আঘাত লাগে। এতে সে গুরুতর আহত হয়। এসময় বিদ্যালয়ে ভবনের ছাদ ধসের আতংক ছড়িয়ে পড়ে। বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা আহত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

আহত স্কুল ছাত্রীর বাবা আবুল কালাম আজাদ দুর্ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, বিদ্যালয়টি বহু পুরাতন। দীর্ঘদিনে সংস্কার কিংবা নতুন ভবন নির্মাণ হয়নি। ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান চলছে। অথচ এই বিদ্যালয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব তোফাজ্জেল হোসেন এই বিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেছেন।

স্কুল কর্তৃপক্ষ মোবাইলে কল করে আমার মেয়ে আহত হওয়ার খবর দিয়েছেন। তারাই হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। আমার মেয়ে কিছুটা সুস্থ তবে তার ঘাড়ে ব্যাথাসহ আতংক কাটেনি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাম প্রসাদ পাল শ্রেণী কক্ষে পাঠদানের সময় ছাদের পলেস্তরা খসে শিক্ষার্থী আহত হওয়ার ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, ১৯৪৪ সালে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত এই ভবনটি ২০০৪ সালে নির্মান করা হয় । বহু বছর ধরে ভবনটি জরাজ্বীণ হয়ে পড়লে সংস্কার হয়নি। নতুন স্কুল ভবন দরকার। আমারা শিক্ষার্থীদের নিয়ে আতংকেই পাঠদান করছি। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ভাণ্ডারিয়া উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. মোঃ নাছির উদ্দিন খলিফা বলেন, প্রধান শিক্ষক তাকে বিষয়টি অবহিত করেছেন। তিনি জরাজ্বীর্ণ কক্ষে শ্রেণী পাঠদান বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। বিষয়টি তিনি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে নতুন ভবন নির্মানের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানান।