Amar Praner Bangladesh

ভান্ডারিয়ায় ৬৫ বছরের বৃদ্ধার জমি দখলের পর হত্যার হুমকি!

 

ভান্ডারিয়া প্রতিনিধি :

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার পূর্ব পশারীবুনিয়া গ্রামের মৃত জজ আলী সিকদারের ছেলে হাজী মোঃ আবুল হোসেন সিকদার (৬৫) নামের ওই বৃদ্ধার জমি জোর পূর্বক দখলের পর তাকে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সম্প্রতি হাজী আবুল হোসেন সিকদারের ক্রয়কৃত জমি দখল করে নিয়েছে প্রভাবশালী প্রতিপক্ষরা। এ ঘটনায় তিনি ভান্ডারিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। স্থানীয় সুত্রে ও অভিযোগে হাজী আবুল হোসেন সিকদার জানান, আমি ও আমার স্ত্রী দলিলমূলে ১ একর ৬৮ শতাংশ সম্পত্তির ক্রয়কৃত মালিক এবং শান্তিপূর্নভাবে ভোগদখল করে আসছি। কিন্তু আমি অর্থনৈতিক ও জনবলে দূর্বল হওয়ায় একই গ্রামের প্রতিপক্ষ মোঃ ছগির সিকদার, সবুর সিকদার, বাবুল খান, অসীম হাওলাদার, খলিলুর রহমান হাওলাদার ও মোয়াজ্জেম সিকদার নামের এই কুচক্রি মহল আমাকে গ্রাম থেকে উচ্ছেদ করার জন্য প্রতিপক্ষরা আমার জমি জোর পূর্বক দখল কওে চাষাবাদ করছে প্রতিবাদ করলে আমার ও পরিবারের উপর একের পর এক হামলা ও নির্যাতন চালিয়ে আসছে। দুটি সন্তান ও স্ত্রী নিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করতে পারছি না।

তাদের অন্যায় অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে বড় ছেলে ঢাকায় চলে গেছে। আমার ছোট ছেলে মোঃ আশ্রাফুল মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণিতে পড়ে। তাকে কয়েকদিন পূর্বে প্রতিপক্ষ মোয়াজ্জেম সিকদার রাস্তায় একা পেয়ে গলা চেপে ধরে এবং মারধর করে। তার চিৎকারে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে।

এসব ঘটনার কারণ তাদের কাছে জানতে চাইলে তারা জনসম্মূখে আমাকে হত্যার হুমকি দিয়ে বলে, তোর ঘরে উঠে তোকে হত্যা করবো এবং তোর পরিবারকেও হত্যা করবো। তিনি আরো জানান, প্রতিপক্ষ ছগির সিকদার সব সময় দাও নিয়ে ঘুরে বেড়ায় তাকে একা পেলেই দাওয়া করে। উল্লেখ্য: ইতিপূর্বে তারা আমার একটি গাভী গরু পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমার খড় কুটা আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলে, সুপারি, হাঁস-মুরগী রাতের আধারে নিয়ে যায়। প্রতিপক্ষরা তাকে এলাকা ছাড়া করতে চান। এ কারনে তিনি সহ তার পরিবারের সদস্যরা আতংকে জীবন যাপন করছে।

এ ঘটনায় প্রতিকার চেয়ে তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার, পিরোজপুর জেলা পুলিশ সুপার, বিভাগীয় পুলিশ কমিশনার সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।