Amar Praner Bangladesh

মদ পান করে ১১ জনের মৃত্যু, অনেকেই হারালেন দৃষ্টিশক্তি

 

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

 

ম’দ পানে মৃত্যুমিছিল! ম’দ খেয়ে এখনও অবধি মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের। আ’শ’ঙ্কাজনক ১২ জন। ভারতের বিহারের সারন জেলার এই ঘটনায় দৃ’ষ্টিশ’ক্তি হারিয়েছেন অনেকে। এখনও পর্যন্ত এই ঘ’টনায় ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে স্থানীয় পুলিশ।

বরখাস্ত করা হয়েছে স্থানীয় থানার পুলিশ কর্মকর্তাকে। প্রথমবার গত বৃহস্পতিবার সারন জেলার ফুলওয়ারিয়া পঞ্চায়েতে ম’দ খেয়ে ২ ব্যক্তির মৃ’ত্যুর কথা জানা যায়। এইসঙ্গে জানা গিয়েছিল, ঘটনায় অসুস্থ হয়েছেন অসংখ্য মানুষ।

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছিল, ওই বিষয়ে খবর পাওয়া মাত্র একটি মেডিক্যাল টিম গঠন করে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। অসুস্থদের প্রথমে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে গুরুতর অসুস্থদের পাটনার পিএমসিএইচ হাসপাতাল ভরতি করা হয়েছে।

সেখানেই চিকিৎসা চলাকালীন ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, মদ খেয়ে মৃ’ত একজনকে দাহ করে ফেলা হয় প্রশাসন খবর পাওয়ার আগেই। শনিবার প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, বর্তমানে পিএমসিএইচ হাসপাতাল ১২ জন গুরুতর অসুস্থের চিকিৎসা চলছে।

আরও বলা হয়েছে, একটি স্থানীয় রীতি অনুযায়ী শ্রাবণ মাসে নির্দিষ্ট তিথিতে স্থানীয়রা ম’দ পান করে থাকেন। এবার সেই রীতি পালনের দিনটা ছিল ৩ আগস্ট। ওই দিনই ফুলওয়ারিয়া পঞ্চায়েতের একদল মানুষ ম’দ পান করেন বলে মনে করা হচ্ছে। এদিকে এই ঘটনায় এখনও অবধি ৫ জনকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে।

এই পাঁচ ব্যক্তি ম’দ তৈরি ও বিক্রি করতেন। এছাড়াও স্থানীয় থানার পুলিশ কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে রাজ্য ম’দ নি’ষি’দ্ধ করে নীতীশ কুমার সরকার। যদিও বিহারে অবৈ’ধ ম’দের কারবার রমরম করে চলে বলেই অভিযোগ বিরোধীদের।