Amar Praner Bangladesh

মারধরের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

 

 

মোঃ শামছুল হক :

 

শেরপুরের নবীনগর এলাকার ব্যবসায়ী আব্দুল আওয়ালকে মারধর করে গুরুতর আহত করার ঘটনায় মো. হাসানুর রহমান (২২) নামে ছাত্রলীগের এক নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

হাসানুর শেরপুর শহরের চকপাঠক এলাকার মজিবর রহমানের ছেলে। তিনি ছাত্রলীগের শেরপুর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট শাখার সভাপতি।

সোমবার ভোরে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ সদর উপজেলার চরমোচারিয়া ইউনিয়নের মাঝপাড়া গ্রাম থেকে হাসানুরকে গ্রেপ্তার করে। সোমবার বিকেলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শরিফুল ইসলাম খানের আদালতের নির্দেশে হাসানুরকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ডিবি পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. হাসানুজ্জামান সোমবার বিকেলে বলেন, গ্রেপ্তার হাসানুর মামলার এজাহার নামীয় আসামি নন। তবে সিসিটিভির ফুটেজে ঘটনার সঙ্গে তাঁর (হাসানুর) জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, গত ২৬ জুন রাতে জেলা ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিমের নেতৃত্বে ও নির্দেশে তাঁর কয়েকজন সহযোগী শহরের নবীনগর এলাকার ব্যবসায়ী আব্দুল আওয়ালের দোকানে গিয়ে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁকে (আওয়াল) বেদম মারধর ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন।

এ ঘটনায় আওয়ালের বড় ভাই কামাল মিয়া বাদী হয়ে গত ২৭ জুন ছাত্রলীগ নেতা রেজাউল করিমসহ ১১ জনের নাম সুনির্দিষ্টভাবে ও অজ্ঞাতনামা আরো পাঁচ-ছয়জনকে আসামি করে সদর থানায় মামলা করেন। এ ঘটনায় পুলিশ ইতিমধ্যে মামলার এজাহারভুক্ত ৫ নম্বর আসামি মারুফ আহমেদকে গ্রেপ্তার করেছে।