Amar Praner Bangladesh

যে ৫ ফোন টেক্কা দিচ্ছে আইফোনকে

স্মার্টফোনের বাজার এখন দুই ভাগে বিভক্ত। একদিকে রয়েছে অ্যাপল, অন্যদিকে বাকিরা। অ্যাপল যখন নিজেকে নিয়ে যাচ্ছে অন্য উচ্চতায়, তখন অন্য স্মার্টফোন নির্মাতারা অ্যাপলকে টেক্কা দিতে ব্যস্ত। তবে টেক্কা দিতে না পারলেও কিছু কিছু স্মার্টফোন আইফোনকে রীতিমতো প্রতিযোগিতার মাঠে নামিয়ে ছেড়েছে। চলুন, ম্যাশেবলের সৌজন্যে জেনে নিই সেই পাঁচটি স্মার্টফোন সম্পর্কে।

১. স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮

অ্যাপলের সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে বিবেচনা করা হয় স্যামসাংকে। এ বছরের এপ্রিলে আইফোনকে টেক্কা দিতে স্যামসাং বের করে ফ্ল্যাগশিপ মডেলের গ্যালাক্সি এস৮ ও এস৮ প্লাস। দুটি স্মার্টফোনের ফিচার প্রায় একই। পার্থক্য শুধু স্ক্রিনের মাপ ও ব্যাটারির ধারণক্ষমতার ওপর। গ্যালাক্সির দুটি ফোনেই আপনি পাবেন চার জিবি র‍্যাম, ৬৪ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি, অক্টাকোর এক্সিনোস সিরিজ ৯ প্রসেসর, ১২ মেগাপিক্সেল ডুয়াল পিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। বড় ভেরিয়েন্টে ৬ দশমিক ২ ইঞ্চি ডিসপ্লে এবং ৩৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি। মোবাইলটির দাম পড়বে প্রায় ৫৮ হাজার রুপি।

২. এইচটিসি ইউ ১১

এইচটিসির নতুন এই স্মার্টফোনে রয়েছে অ্যানড্রয়েড নোগাট ৭ দশমিক ১ অপারেটিং সিস্টেম, ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চি কিউ এইচ ডিসপ্লে, ৬ জিবি র‍্যাম, ১২৮ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি, অক্টাকোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ প্রসেসর। পেছনের ক্যামেরা ১২ মেগাপিক্সেলের পাশাপাশি রয়েছে ১ দশমিক ৭ অ্যাপারচার ডুয়াল পিক্সেল টেক। ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরার সঙ্গে পাচ্ছেন ২ দশমিক শূন্য অ্যাপারচার। ফোনটির দাম ধরা হয়েছে প্রায় ৫২ হাজার রুপি।

৩. এলজি জি৬

এলজি জি৬ স্মার্টফোনে আপনি পাচ্ছেন ৫ দশমিক ৭ ইঞ্চি স্ক্রিন, অ্যানড্রয়েড নোগাট ৭ দশমিক শূন্য, কিউএইচডি ডিসপ্লে, চার জিবি র‍্যাম, ৬৪ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি, পেছন ও সামনে দুটি ক্যামেরা ১৩ ও ৫ মেগাপিক্সেল। এ ছাড়া ৩৩০০ এমএএইচ ব্যাটারির সঙ্গে রয়েছে ফাস্ট চার্জিং অপশন। বাজারে ছাড়ার সময় মোবাইলটির দাম ছিল প্রায় ৫২ হাজার রুপি। এক মাসের মধ্যে তা কমেছে প্রায় ১৩ হাজার রুপি।

৪. সনি এক্সপেরিয়া এক্সজেড প্রিমিয়াম

স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ প্রসেসর রয়েছে ফোনটিতে। এ ছাড়া ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চি ৪ কে আইপিএস ডিসপ্লে, চার জিবি র‍্যাম, ৬৪ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি। নোগাট ৭ দশমিক ১, পেছনের ক্যামেরা ১৯ মেগাপিক্সেল, সেলফি ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল। ব্যাটারির ক্ষমতা ৩২৩০ এমএএইচের পাশাপাশি কুইক চার্জ ৩ দশমিক শূন্য রয়েছে । দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৬০ হাজার রুপি।

৫. আসুস জেনফোন এআর

এটিই বিশ্বের প্রথম ফোন, যাতে গুগল ট্যাঙ্গো ও ডে ড্রিম চালাতে পারবেন আপনি। ৫ দশমিক ৭ ইঞ্চি অ্যামোলেড ডব্লিউকিউএইচডি ডিসপ্লে, আট জিবি র‍্যাম, ১২৮ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি, অ্যানড্রয়েড নোগাট ৭ দশমিক ১, পেছনের ক্যামেরা ২৩ মেগাপিক্সেল, ৮ মেগাপিক্সেল সামনের ক্যামেরা, ৩০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সঙ্গে ফাস্ট চার্জ অপশন রয়েছে। ফোনটির দাম ধরা হয়েছে প্রায় ৫০ হাজার রুপি।