Amar Praner Bangladesh

রাজনৈতিক দলাদলী বাদ দিয়ে আসুন দিনাজপুর জেলার জন্য কাজ করি : মন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী

 

 

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ

 

শহরের গ্রীণভিউ কমিউনিটি সেন্টারে এক আড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় দিনাজপুর তথা উত্তরবঙ্গের প্রাচীন প্রথম দৈনিক পত্রিকা “দৈনিক উত্তরা” পত্রিকার ৪৭তম বর্ষপূর্তী পালন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। অনুষ্ঠানের শুরুতে পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা মরহুম অধ্যাপক মুহাম্মদ মহসীন স্যারকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হয় এবং তাঁর সাংবাদিকতা সম্পাদকীয়তা সহ তার কর্মজীবন নিয়ে আলোচনা করা হয়।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আজিজুল ইমাম চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফারুকুজ্জামান মাইকেল, দৈনিক উত্তরা পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আহমদ জাকি সুমন মহসীন, দিনাজপুর যুব লীগের সভাপতি রাশেদ পারভেজ, দিনাজপুর পৌরসভা মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ গোলাম নবী দুলাল, দিনাজপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ মোসাদ্দেক হোসেন লাবু, দিনাজপুর সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এম.এ. জব্বার ও সাংবাদিক কামরুল হুদা হেলাল। অনুষ্ঠানটি সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন দৈনিক উত্তরা পরিবারের বার্তা সম্পাদক মোঃ ইদ্রিস আলী, ইউনিট চীফ আব্দুস সালাম, স্টাফ রিপোর্টার ফরিদ আহমেদ, বজলার রহমান, মিন্নাতুল্লাহ মিন্নাত সহ ইলেকট্রিক, প্রিন্ট এবং অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিক, স্থানীয় প্রশাসন, শিক্ষক, ব্যাংককারসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন আহমাদ জাকি সুমন মহসীন।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনাজপুর জেলাবাসীর জন্য ১ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট ঘোষণা করেছেন। লেজুরবৃত্তি রাজনীতির কারণে এবং দলীয় হিংসাপরায়নের কারণে দিনাজপুরে উন্নয়নের খবর পত্রিকার পাতায় ছাপায় না সাংবাদিকরা। দলীয় সংঘাতের কারণে দিনাজপুরের উন্নয়ন এতদিন হয়নি। এখন সময় এসেছে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে, নিজের দিনাজপুর জেলার জন্য কাজ করতে হবে।

তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে বলেন, রাজনীতির গন্ডি পেরিয়ে একজন সাংবাদিক হিসেবে দিনাজপুরের উন্নয়নের কথা পত্রিকার পাতায় লিখুন। দিনাজপুর জেলা সবার। নৌ- প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, দিনাজপুর জেলায় ইপিজেড হবে ইতোমধ্যে ১০০ কোটি টাকার জমি কেনা হয়েছে। শেখ জামাল নামে দিনাজপুরে আইটি পার্কেরও অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি আরো বলেন, দিনাজপুর জেলা আর বন্যায় ভাসবে না। ইতোমধ্যে দিনাজপুরের ঢেপা নদী, পুর্নভবা নদীসহ বেশ কয়েকটি নদীর উন্নয়ন কাজ চলছে। বন্যা হলে আর দিনাজপুর জেলা ডুববে না।

এছাড়াও দিনাজপুর জেলার ১০ মাইল হতে দিনাজপুর শহর পর্যন্ত ইতোমধ্যে ফোর লাইনের কাজ শুরু হয়েছে। আগামী ১ বছরের মধ্যে দিনাজপুর জেলা হবে একটি মডেল। তিনি বলেন, আমি শুধু আমার এলাকার কথা ভাবি না। দিনাজপুর জেলার রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন বাজেট নিয়ে কথা বলেছি। আর কিছুদিনের মধ্যে সেটি পাশ হবে এবং রাস্তাঘাটের উন্নয়নের কাজ শুরু হবে। অনুষ্ঠান শেষে দৈনিক উত্তরার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক মরহুম অধ্যাপক মুহাম্মদ মহসীনের লেখা “প্রত্যাবর্তন বইটি প্রধান অতিথিকে উপহার হিসেবে দেন দৈনিক উত্তরার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আহমাদ জাকি সুমন মহসীন।