Amar Praner Bangladesh

রাজবাড়ী ইসলামপুর কৃষকের সুবিধার্থে খাল খননে বাঁধা দিচ্ছে কিছু কু-চক্রী মহল

 

 

আর কে রুবেল :

 

রাজবাড়ী জেলা বালিয়াকান্দি উপজেলা ইসলামপুর ইউনিয়ন কৃষকের জমিতে ভালো ফসল ফলানোর জন্য তারা খাল খনন করে পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা করার সময় কিছু কুচক্রী মহল এই খাল খননে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায়।

একই সাথে তালবাড়িয়া বিল পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিঃ সাধারণ সম্পাদক মোঃ তৌহিদুল ইসলাম এর বিরুদ্ধে খাল খননের বিষয়ে একটি অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে সমিতির সভাপতি মোঃ সোহরাব সাহেবের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, তার চাকরির সুবাদে তিনি মানিকগঞ্জে থাকেন। এই জন্য তিনি সমিতিতে বেশি সময় দিতে পারেন না এবং অভিযোগের বিষয়টি সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ তৌহিদুল ইসলামের নিকট অবহিত করে। পরে সমিতির সাধারণ সম্পাদক এর নিকট অভিযোগের বিষয়ে ফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সরেজমিনে এসে সত্য মিথ্যা যাচাই করার জন্য।

গত ২৯/০৩/২০২২ ইং দৈনিক আমার প্রাণের বাংলাদেশ পত্রিকার একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছায় ঘটনাস্থলে গিয়ে বিষয়টি তদন্ত করলে সমিতির অভিযোগের বিষয়টি পুরো উল্টে যায় । ঘটনাস্থলে এলাকার লোকজনের সাথে কথা বললে তারা বিষয়টি পুরো মিথ্যা বলে বর্ণনা করেন এবং তারা জানান, যারা অভিযোগ দিছে তারা আসলে এলাকার লোকজন কৃষকের ভালো চায়না বলে তারা মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে।

ঘটনাস্থলে দৈনিক আমার প্রাণের বাংলাদেশ পত্রিকার টিম দেখতে পায় প্রায় ১০০ জনের মত কৃষক সহ আশপাশ এলাকার লোকজন চলে আসে। আমাদের সাথে কথা বলছেন মোঃ জামাল, মোঃ আলী, মোঃ খলিল মন্ডল, মোঃ বাবুল, মোঃ মিঠুন, মোঃ সুমন খান, মোঃ নিজামুদ্দিন, মোঃ আব্দুর রব, মোঃ রিপন শেখসহ আরো অনেকেই।

তারা জানান, খাল খননের অনিয়মের বিষয়টি ভিত্তিহীন, খাল খননের কারণে পানি নিষ্কাশন করা সম্ভব আর পানি নিষ্কাশন করা হলে আমাদের ফসল ভালো হবে। আমরা এখন বছরে তিনবার ফসল ফলাতে পারি আর যদি পানি নিষ্কাশন না হয় তাহলে বছরে মাত্র একবার ফসল ফলাতে পারবো। তাই তাদের ভালোর জন্য খাল খনন করা হচ্ছে এবং তারা সরেজমিনে দেখিয়ে দেন একপাশে ফসল আছে আর একপাশে ফসল নেই এটাই তাদের একটি বড় প্রমাণ।

কৃষকরা আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে। এ বিষয়ে সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ তৌহিদুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ১৮/০৯/২০১১ খ্রীঃ তালবাড়িয়া বিল পানি ব্যবস্থাপনা সময় সমিতি লিঃ প্রতিষ্ঠিত হয় সমিতিটি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পরে আমি মাত্র একটি প্রকল্প পেয়েছি খাল খননের যা সম্পন্ন করেছি যা এলাকার লোকজন ও কৃষক ভাইদের মুখে মুখে। আমার এলাকার কৃষকের যাতে সুবিধা হয় সেভাবে আমার কাজ আমি করে যাব, আমার এলাকার কৃষক বাঁচলে আমি বাঁচবো, যা করা দরকার আমি আমার এলাকার কৃষক ভাইদেরকে নিয়ে করব।

মোঃ তৌহিদুল ইসলাম আরও জানান, তিনি এলাকার উন্নয়নের জন্য অনেক কাজ করেছেন রাস্তাসহ এলাকায় একটি মাদ্রাসা ও একটি মসজিদ নির্মাণ করেছেন তার বড় ভাইকে সাথে নিয়ে এই মাদ্রাসায় বর্তমানে ২০০ জন ছাত্র আছে আবাসিক । মোঃ তৌহিদুল ইসলাম বর্তমানে সিনিয়র যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ইসলামপুর আওয়ামী লীগ ও সদস্য উপজেলা আওয়ামী লীগ বালিয়াকান্দি শাখা, মোঃ তৌহিদুল ইসলামের বিষয়টি যতটুকু জানা গেল তাতে মনে হলো তিনি তার এলাকার লোকজন এবং তার কৃষকদের সেবক।