Amar Praner Bangladesh

লোহাগড়ার মেধাবী ছাত্র মারুফ মৃত্যুযন্ত্রণায় হাসাপাতালে চিকিৎসায় বৃত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান

মোঃ বুলবুল খান, লোহাগড়া(নড়াইল)প্রতিনিধি :

”মানুষ মানুষেরই জন্য” একটু সহানুভুতি কি মারুফ পেতে পারে না ? নড়াইলের মেধাবী ছাত্র মারুফ সড়ক দূর্ঘটনায় মারাত্বক আহত হয়ে দীর্ঘ এক মাসের বেশি সময় ধরে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালের আইসিইউতে থাকার পরও জ্ঞান ফেরেনি। বর্তমানে ঢাকায় চিকিৎসাধীন মারুফ।  সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে,নড়াইলের লোহাগড়া পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের রাজুপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য মোঃ ইবাদত হোসেন ও মেরিনা বেগম এর ছেলে খুলনার সরকারি বিএল কলেজের গণিত বিভাগের মেধাবী ছাত্র এমএম ইকরামুল ইসলাম মারুফ(১৯)। গত ১৬ জুলাই খুলনায় সড়ক দূর্ঘটনায় মারাত্বক আহত হন মারুফ। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ঢাকার মহাখালিস্থ হাসপাতাল থেকে সর্বশেষ ঢাকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়(সাবেক পিজি) তে আইসিইউ ২১ নং কেবিনে চিকিৎসাধীন মারুফ। প্রতিদিন  গড়ে ২০/২৫ হাজার টাকা চিকিৎসা খরচ লাগছে মারুফের। হাসপাতালে মারুফের পাশে অসহায় পিতা, মা ও একমাত্র বোন ইলারা পারভীন বৃষ্টি অপলক দৃষ্ঠিতে তাকিয়ে আছেন কখন মারুফের জ্ঞান ফিরবে। অঝোরে তাদের চোখ থেকে বেরোচ্ছে পানি। দীর্ঘদিন সেনাবাহিনীতে চাকুরি করে প্রাপ্ত পেনশন এর টাকাসহ প্রায় ২০ লাখ টাকা ইতিমধ্যে খরচ হয়ে গেছে। অসহায় পরিবারটি আজ অসহায় সন্তানকে বাঁচানোর আকুতি নিয়ে দ্বারস্থ হয়েছেন সকলের দোয়ারে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি নেতা বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজসেবক আমিনুর রহমান হিমু  গত মঙ্গলবার বিকালে ঢাকার পিজি হাসপাতালে অসুস্থ মারুফকে দেখতে যান। তিনি মারুফের পিতার কাছে চিকিৎসার জন্য ত্রিশ হাজার টাকা প্রদান করেন। নড়াইলের আরেক কৃতি সন্তান এসএসএফের সাবেক ডিজি অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল শেখ মোঃ আমান হাসান, পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা মোঃ নাজমুল আলম, অবসরপ্রাপ্ত লেঃ কর্ণেল সৈয়দ হাসান ইকবাল , সেনা কর্মকর্তা, বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, সংগঠন ইতিমধ্যে সহযোগিতা করছেন। সহযোগিতার জন্য  মারুফের  পিতা ইবাদত ০১৭১৭৭৪৪৯১৪ ও বোন বৃষ্টি ০১৭৬৮১৯৫৬১৫ এর  নাম্বারে যোগাযোগের অনুরোধ জানিয়েছেন ঢাকাস্থ নড়াইল সমিতিসহ নড়াইলের বিভিন্ন সংগঠন। সকলের সহযোগিতায় হয়তো মৃত্যুর দুয়ার থেকে ফিরে আসতে পারে মারুফ।