শরীয়তপুরের ডামুড্যায় হাত পা বাঁধা কিশোরীর লাশ উদ্ধার

 

 

শরীয়তপুর প্রতিনিধি :

শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যায় হাত, পা ও মুখ বাধা অবস্থায় খালের ভিতর থেকে এক কিশোরীর (১৫) লাশ উদ্ধার করেছে ডামুড্যা থানা পুলিশ। উপজেলার ডামুড্যা পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের আলা উদ্দিন ছৈয়ালের মেয়ে কাজল আক্তার। গতকাল রাতে টিভি দেখতে যাওয়ার কথা বলে কাজল ঘর থেকে বের হয়। আজ বৃহস্প্রতিবার সকালে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ডামুড্যা থানা পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, প্রতিদিন রাতে টিভি দেখার জন্য পাশের বাড়িতে যেতেন কাজল। গতকালও টিভি দেখতে যাওয়ার কথা বলে ঘর থেকে বের হয় কাজল। অনেক রাত হয়ে গেলেও কাজল ঘরে ফিরে না আসায় তাকে খুজতে শুরু করে পরিবারের লোকজন।

যে বাড়িতে কাজল টিভি দেখতে যায় সেখানে গিয়ে ও তাকে পাওয়া যায়নি। পরে বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনদের কাছে খোজ নেয়। সারারাত খোজ করেও পরিবারের লোকজন তার কোন সন্ধান পায়নি। সকালে বাড়ির পাশে খালের ভিতর একটি লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। পরে কাজলের মা তার লাশ শনাক্ত করে। পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

ডামুড্যা থানা ওসি (তদন্ত) এমারত হোসেন বলেন, আমরা লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছি। কিভাবে মেয়েটি মারা গেল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এখনও থানায় কোন অভিযোগ হয়নি। অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।