Amar Praner Bangladesh

শিশু ছাত্র ধর্ষণের অভিযোগে এক শিক্ষক ও পুলিশের কাজে বাঁধা দেওয়ায় আরো ৩ জনসহ গ্রেফতার ৪

 

 

আব্দুল খালেক সুমন :

গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানার ডেগেরচালা এলাকা থেকে শিশু ছাত্রকে ধর্ষণের অভিযোগে এক শিক্ষক এবং পুলিশের কাজে বাঁধা প্রদানের জন্য আরো ৩ শিক্ষকসহ মোট ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) মো. আলমগীর হোসেন।

তিনি জানান, মঈনুল ইসলাম হামীয়ুস সুন্নাহ মাদ্রাসার আবাসিক শিক্ষক শান্ত ইসলাম ওরফে আ. রহমান (২২) শিশুছাত্রের সঙ্গে কয়েক মাস যাবৎ জোরপূর্বক অসামাজিক কার্যকলাপ করে আসছিলো। গত ৮ সেপ্টেম্বর ভোর সাড়ে ৫ টায় ওই ছাত্রকে বিস্কুট দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

আলমগীর হোসেন আরো বলেন, শিশুটি তার বাবাকে ঘটনাটি জানানোর পর তার বাবা মাদ্রাসার প্রিন্সিপালসহ অন্য দুই শিক্ষককে জানান। মাদ্রাসার শিক্ষকরা বিষয়টি সমাধান করবেন বলে শিশুটির বাবাকে আশ্বস্থ করে কৌশলে কালক্ষেপণ করে। এরই মধ্যে ধর্ষণের আলামত নষ্ট হয়ে যায়।

সোমবার শিশুর বাবা ফের শিক্ষকদের দ্বারস্থ হলে তারা জানায় পরীক্ষা শেষ হলে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবে। পরে শিশুটির বাবা কোনো প্রতিকার না পেলে ঘটনাটি পুলিশকে জানায়। এরপর পুলিশ ধর্ষক শিক্ষককে আটক করতে গেলে মাদ্রাসার প্রিন্সিপালসহ অন্য দুই শিক্ষক পুলিশের কাজে বাধা দেয়। পরবর্তীতে শিশুর বাবা মো. বাচ্চু মিয়ার অভিযোগের প্রেক্ষিতে গাছা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলায় অভিযুক্ত ধর্ষক শিক্ষকসহ মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল এবং অন্য দুই শিক্ষককে গ্রেফতার করে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) আসামিদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।