Amar Praner Bangladesh

শ্রীবরদীতে অগ্নিদগ্ধ হয়ে শিশুর মৃত্যু,পরিবারের পাশে উপজেলা প্রশাসন

 

 

মোঃ শামছুল হক, জেলা প্রতিনিধি শেরপুরঃ

 

শেরপুরের শ্রীবরদীতে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ইসমাইল (৫) নামে এক শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। ১৯ আগস্ট শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে উপজেলার ভেলুয়া ইউনিয়নে রারারচর বলিদাপাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে।

এসময় বসতঘর, গোয়াল ঘর সহ আসবাবপত্র পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়। নিহত ইসমাইল ওই গ্রামের আমিন হোসেনের ছেলে। ঘটনাটি জনার পর শনিবার সকালে ওই পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে উপজেলা প্রশাসন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে নগদ ২০ হাজার টাকা, ৩০ কেজি চাল সহ বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এডিএম শহিদুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নিলুফা আক্তার, সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. আতাউর রহমান, ভেলুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল করিম।

পরিবারের সদস্য ও স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নিহত ইসমাইলের বাবা ঢাকায় রিকশা চালায়। সেই সুবাধে ইসমাইল তার মা সহ নানা ইসহাক হোসেন ওরফে নেংরা’র বাড়িতে বসবাস করতো। ১৯ আগস্ট শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে গোয়াল ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহূর্তেই আগুন বসতঘরে ছড়িয়ে পড়ে।

এসময় পরিবারের লোকজন ঘরের জিনিসপত্র সরানোর সময় সবার অজান্তে ইসমাইল গোয়াল ঘরে ঢুকে পড়ে। সেখানেই অগ্নিদগ্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে শ্রীবরদী ফায়ার সার্ভিসের দল ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। শ্রীবরদী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আরিফুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিতে সক্ষম হয়েছি। বসতঘর, গোয়াল ঘর, খড়ের টিবি সহ আসবাবপত্র পুড়ে গেছে। এঘটনায় একটি শিশু অগ্নিদগ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। থানা অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, এঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।