Amar Praner Bangladesh

সাতক্ষীরায় অবৈধ গর্ভপাতের ঘটনায় মা ও শিশু ক্লিনিকে দুই নার্স সহ বিভিন্ন মামলায় আটক ১১

 

 

মীর আবুবকর :

 

সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের পৃথক অভিযানে অবৈধ গর্ভপাতের সাথে জড়িত ও বাইসাইকেল চুরির ঘটনায় ১১ জনকে আটক করেছে সদর থানা পুলিশ।

আটককৃতরা হলেনে, শহরের ইটাগাছা এলাকার বাবর আলী, তার পুত্র নাজমুল ইসলাম, স্ত্রী পারভীন সুলতানা ও সাতক্ষীরা মা ও শিশু ক্লিনিকের সিনিয়র স্টাফ নার্স শিরিনা সুলতানা ও মমতাজ শাহানারা। সদর থানায় গত কাল বেলা ১১ টায় প্রেস ব্রিফিং -এ ওসি দেলোয়ার হোসেন জানান বৃষ্টি মিম তার স্বামীসহ উল্লেখিত ব্যক্তিদের আসামী করে গত ১লা সেপ্টেম্বর সদর থানায় নারী নির্যাতন মামলা করে।

মামলায় বলা হয়, যৌতুকের দাবীতে তার স্বামী, শশুর, শাশুড়ি তাকে মারপিট করতো এমনটি তাকে জোরপূর্বক মা ও শিশু ক্লিনিকে নিয়ে যেয়ে দুই নার্সদের সহযোগিতায় অবৈধ ভাবে গর্ভপাত করায়। পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসামীদের আটক করেছে। অপর অভিযানে সদরের বিভিন্ন বাইসাকেল চুরির সাথে জড়িত থাকায় আরো ৫ জনকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলেন, আশরাফুল ধাবক, আজহারুল, আবু মুসা, ফারুক, মেছের আলী ও পলাশ। সদর থানার ওসি মোঃ দেলোয়ার হোসেন জানান, আসামীরা দীর্ঘদিন ধরে সদরের বিভিন্ন এলাকার বাইসাইকেল চুরি করে সাধারণ মানুষকে ভোগান্তিতে ফেলতেন। তারা সক্রিয় চোর দলের সদস্য। সকল আসামীদের কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।