শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:৫৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সৌদিতে পাচারকালে ৩০ লক্ষ ইয়াবা ট্যাবলেট আটক, গ্রেফতার ২ রাজশাহীর বানেশ্বর-পাবনার ঈশ্বরদী সড়কের নির্মাণ কাজে গতি নেই নীলফামারী ডোমারে ওয়াজ মাহফিল থেকে ফেরার পথে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেফতার অভাবে বিক্রি করে দেওয়া নবজাতক শিশুকে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিলেন টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ টঙ্গীতে জাতীয় পর্যায়ে শিশু কিশোর ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন: যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী শেরপুরে ৬ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কুমিল্লা আইএইচটি এন্ড ম্যাটস-এ স্বরস্বতী পূজা উদযাপন রাজধানী শ্যামলী আদাবর থানার অন্তর্গত হোটেল বৈশাখীতে চলছে অসামাজিক কার্যকলাপ চার পুলিশ কর্মকর্তার অতিরিক্ত আইজিপি পদে পদোন্নতি গাজীপুর জেলা কৃষকলীগের সহ সভাপতি মোঃ আজহার আলী বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক

সাতক্ষীরা জেলায় দিগন্ত জুড়ে দুলছে গাঢ় সবুজের গম ক্ষেত

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১২ মার্চ, ২০১৮
  • ১৮ Time View

মোঃ আশিকুর রহমান, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ঃ স্বল্প সময় ও স্বল্প খরচে অধিক লাভবান হওয়ায় জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে গম চাষে ঝুঁকে পড়েছে কৃষকরা। কৃষকদের চাষাবাদকৃত গমের বাম্পার ফলনও সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। কৃষকদের মুখে এখন হাসির ঝিলিক। গম পরিচর্যায় কৃষকরা এখন ব্যস্ত সময় পার করছে। গমের চাহিদা বাড়ায় এবং দাম বেশি পাওয়াতে দিন দিন এ জেলাতে গমের আবাদ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এছাড়া জ্বালানির চাহিদা মেটাতে কৃষকরা গম চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছে।
সাতক্ষীরা সদর, তালা ও পাটকেলঘাটার বেশ কিছু গ্রামাঞ্চলে ঘুরে দেখা গেছে দিগন্ত জুড়ে দুলছে গাঢ় সবুজের গম ক্ষেত। তালা উপজেলার খলিষখালীর হাজরা পাড়ার গম চাষী আব্দুল কাদের জানান, গম চাষাবাদ খুব সহজ এবং স্বল্প সময়ে অধিক লাভজনক ফসল। তিনি এবছর দুই বিঘা জমিতে গমের আবাদ করেছেন। গত বছরের তুলনায় এ বছর ভালো ফলন হবে বলে তিনি আশা করছেন।
কুমিরার আরশাদ আলী বলেন, গম চাষাবাদে খরচ এবং রোগ বালাই খুব কম হয় । এবছর আমি এক বিঘা জমিতে গম চাষ করেছি, ফলন ভাল হয়েছে। গম চাষে লাভ বেশি হওয়ায় কৃষকরা দিনদিন আগ্রহী হচ্ছে এদিকে। তিনি ভাল দাম পাওয়ার আশা করছেন।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, চলতি মৌসুমে সাতক্ষীরা জেলাতে গমের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১হাজার ৫৫০ হেক্টর জমিতে। উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৫ হাজার ১৯৩ মে. টন। সদরে আবাদ হয়েছে ৫৪৫ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১৮২৬ মে. টন। কলারোয়ায় আবাদ হয়েছে ২০৫ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৬৮৭ মে. টন। তালায় আবাদ হয়েছে ৬১০ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২০৪৪ মে. টন। দেবহাটায় আবাদ হয়েছে ১৫ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৫০ মে. টন। কালিগঞ্জে আবাদ হয়েছে ১০৯ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩৬৫ মে. টন। আশাশুনিতে আবাদ হয়েছে ৪৭ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১৫৭ মে. টন। শ্যামনগরে আবাদ হয়েছে ১৯ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৬৪ মে. টন।
এসব আবাদি জমিতে ভাল ফলন পেতে ‘বারী-গম’এর চাষ করেছেন কৃষকরা। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় চাষীরা ভাল ফলন পাওয়ার আশা করছে। এবিষয়ে সাতক্ষীরা খামার বাড়ির কৃষি উপপরিচালক আব্দুল মান্নান জানান, আমরা কৃষকদের গম চাষে উদ্ধুদ্ধ করতে নানা মুখি পদক্ষেপ নিয়েছি। গমে রোগ বালাই কম। চাষীরা যাতে গম চাষে আগ্রহী হয় সে বিষয়ে কৃষিকর্মকর্তারা চাষীদের পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category