Amar Praner Bangladesh

সুখের আশায় গিয়েছিলেন প্রবাসে অবশেষে লাশ হয়ে ফিরতে হলো জাকিরকে

 

 

মোঃ শাকিল আহমেদ, বরগুনা :

আমার কলিজার টুকরা পোলাডারে আমার কোলে আইন্না দেন, আমারে শান্তি দেওয়ার জন্য আমার পোলাডা সবকিছু বেইচ্চা বিদেশে গেছে। ও আল্লাহ এ কেমন পরীক্ষা তোমার। ছয় মাস আগে স্বামী আর এখন পোলাডারেও লইয়া গেলা!’ এ আর্তনাদ স্বামী সন্তান হারানো পাথরঘাটা উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাদুরতলা এলাকার জয়নব বিবির (৪৫)।

আগস্ট মাসের ২৯ তারিখ বরগুনার পাথরঘাটা থেকে পরিবারের অর্থনৈতিক অবস্থার পরিবর্তনের জন্য সৌদি আরবে যান আবুল হোসেন মুসুল্লি ও জয়নব বিবির বড় ছেলে জাকির হোসেন মুসুল্লি।

সেখানে গিয়ে একটি হোটেলের কাজে যোগ দেন তিনি। কিন্তু এর তিন দিন পর গত ৭ সেপ্টেম্বর ব্রেন স্ট্রোক করে অসুস্থ হয়ে পড়েন জাকির। পরে তাঁকে হাসপাতালে নেওয়া হলে ১৪ সেপ্টেম্বর সৌদি সময় বেলা ১১টার দিকে হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন পাথরঘাটা এলাকার বাসিন্দা সৌদিপ্রবাসী ইলিয়াস মুন্সী।

এ দিকে জাকিরের মৃত্যুর খবরে তাঁর পরিবারে চলছে মাতম। নিজের ক্ষতির বিলাপ করতে করতে বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন জয়নব বিবির। তিনি বলেন, ‘এত শোক তুমি দেও কেমনে? জমিজমা সবকিছু বেইচ্চা পোলাডা বিদেশ গেছে। এহন জমিজমাও শ্যাষ আর পোলাডাও শ্যাষ। এহন আমি কি নিয়ে বাচমু! আমার পোলার কবরডা আমার চোখের সামনে দিতে চাই।’

স্থানীয় থেকে জানা যায়, ভিটাবাড়িসহ সকল জমি বিক্রি করে জীবিকার তাগিদে প্রবাসে পারি জমিয়েছিলেন জাকির হোসেন।

পাথরঘাটা এলাকার বাসিন্দা সৌদিপ্রবাসী ইলিয়াস মুন্সী জানান, ‘জাকির হোসেন দালালের খপ্পরে পড়ায় তাঁর ৩ লাখ ২০ হাজার টাকার ভিসায় পাঁচ লাখ ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তিনি তাঁর বাড়ির সমস্ত জমিজমা বিক্রি করে সৌদি এসেছিলেন।’ জাকির হোসেন অতিরিক্ত দুশ্চিন্তায় অসুস্থ হয়ে ব্রেন স্ট্রোক করেছেন বলে চিকিৎসকের বরাত দিয়ে জানান ইলিয়াস মুন্সী।

ইলিয়াস মুন্সী আরও জানান, গত ৭ সেপ্টেম্বর জ্বর নিয়ে জাকির হোসেনকে আল কাসিম সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৪ সেপ্টেম্বর তাঁর মৃত্যু হয়। বর্তমানে তাঁর মরদেহ মর্গে রয়েছে।

মৃত জাকির হোসেনের স্ত্রী হনুফা বেগম বলেন, ‘টানাটানির সংসার থেকে একটু ভালোর আশায় ভাগ্য ফেরাতে বাড়ির জমিজমা বিক্রি করে ধার–দেনা করে বিদেশে পাঠাইছি। আমি শাশুড়ির ঘরে আছি। সেও অসুস্থ। এখন তিনটা ছেলে মেয়ে নিয়ে কেমনে বাচমু কিছুই বুঝতে পারছি না।’

এ বিষয়ে পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন জানান, জাকির হোসেনের মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনতে যে সকল কাগজপত্র প্রয়োজন তা প্রস্তুত করা হচ্ছে। তাঁর মরদেহ ফিরিয়ে আনতে জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।