Amar Praner Bangladesh

স্ত্রীর পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত গাফ্ফার চৌধুরী

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

 

একুশের গানের রচয়িতা দেশবরেণ্য সাংবাদিক, কলাম লেখক ও গীতিকার আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

শনিবার (২৮ মে) বিকেল সাড়ে ৫টায় রাজধানীর মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে স্ত্রী সেলিমা আফরোজ চৌধুরীর কবরের পাশে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

এর আগে দুপুর ১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধায় সিক্ত হন মহান একুশের অমর সংগীতের এই রচয়িতা, সাহিত্যিক ও বরেণ্য সাংবাদিক। এরপর বিকেল সাড়ে ৩টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে মরহুমের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

সেখান থেকে মরদেহ নেওয়া হয় জাতীয় প্রেস ক্লাবে। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে তাঁকে গার্ড অব অনার প্রদান শেষে ভাষা আন্দোলনের প্রভাতফেরির গান হিসেবে পরিচিত ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ গানটি সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের শিল্পীরা গেয়ে ওঠেন। শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করতে আসা উপস্থিত জনতাও তাতে সুর মেলায়।

এরপর একে একে রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান সম্মান প্রদর্শন করে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এ সময় শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী, জাহাঙ্গীর কবির নানক, মাহবুবউল আলম হানিফ, নুরুল ইসলাম নাহিদ, মির্জা আজম, রাজশাহীর মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন, মুহম্মদ জাফর ইকবাল, রামেন্দু মজুমদার, নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চু প্রমুখ।

গত বৃহস্পতিবার (১৯ মে) ভোর ৬টা ৪০ মিনিটে লন্ডনের বার্নেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী। তার বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর। তিনি বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন।