Amar Praner Bangladesh

২১ শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে শেরপুরে প্রতিবাদ সমাবেশ ও স্মরণসভা অনুষ্ঠিত

 

 

মোঃ শামছুল হক, জেলা প্রতিনিধি শেরপুরঃ

 

তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের শাসনামলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের জনসভায় গ্রেনেড হামলা চালিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ ও জড়িতদের শাস্তির দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ ও স্মরনসভা করেছে শেরপুর শহর আ’লীগ।রবিবার বিকেলে রঘুনাথ বাজার এলাকায় প্রতিবাদ সমাবেশ ও স্মরণসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সরকার দলীয় হুইপ জেলা আ’লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. আতিউর রহমান আতিক এমপি।

এ সময় হুইপ আতিক বলেন, এটি একটি বর্বরোচিত হামলা। ২০০৪ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশ গ্রেনেড হামলা চালানো হয়, যা একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা নামে পরিচিত। এই ভয়াবহ হামলায় আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক আইভী রহমানসহ ২৪ জন নিহত হয়। আহত হয় প্রায় ৪ শতাধিক নেতাকর্মী।

৭৫ এ বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে হত্যা করার মুল পরিকল্পনা ছিল মেজর জিয়ার আর ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার পরিকল্পনা ছিল খালেদা জিয়ার ও তারেক রহমানের। যত নষ্টের নায়ক হচ্ছে বিএনপি। তারা খুনিদের হাতে পতাকা তুলে দিয়েছে।

শেরপুর শহর আ’লীগের সভাপতি প্রকাশ দত্তের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন শেরপুর জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক বিজ্ঞপিপি এডভোকেট চন্দন কুমার পাল।শহর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হাসান উৎপল এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে জেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সুব্রত কুমার দে ভানু, সাংগঠনিক সম্পাদক বশিরুল ইসলাম সেলু, উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আওলাদুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক অজয় কুমার চক্রবর্তী জয়, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শোয়েব হাসান শাকিল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব এডভোকেট মো. মজদুল হক মিনু, আলহাজ্ব ফখরুল মজিদ খোকন, এডভোকেট মোসাদ্দেক ফেরদৌসী, মিনহাজ উদ্দিন মিনাল, দপ্তর সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল-মামুন, উপ দপ্তর সম্পাদক বিনয় কুমার সাহা, সমাজকল্যাণ সম্পাদক চন্দন সাহা, শিক্ষা ও মানব সম্পদ সম্পাদক শামীম আহমেদ, শহর আ’লীগের সাবেক সভাপতি এডভোকেট আবুল কাশেম জিপি, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম, আ’লীগ যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিভিন্ন সময় বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করার জন্য চেষ্টা চালানো হয়েছে। কিন্তু জনগণের প্রিয় নেত্রীকে সব সময় আল্লাহ রক্ষা করেছেন। বিএনপির নেতৃত্বাধীন চার দলীয় জোট আমলে ২১ আগস্ট যে গ্রেনেড হামলা হয়েছে তাও ছিল জননেত্রীকে হত্যার চেষ্টা। বক্তারা অবিলম্বে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিচার দাবি করেন।